মাশরাফি-সাকিবদের কোচ স্টিভ রোডস

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০৮ পিএম, ০৭ জুন ২০১৮
মাশরাফি-সাকিবদের কোচ স্টিভ রোডস

অবশেষে নিশ্চিত হলো বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেটের দলের প্রধান কোচ। সে আর কেউ নয়, সাক্ষাৎকার দিতে আসা সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক স্টিভ রোডসই বাংলাদেশের কোচ।

বৃহস্পতিবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এ ঘোষণা দিয়েছেন। জানান, আগামী দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচ হচ্ছেন স্টিভ রোডস। ২০২০ সালের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত টাইগারদের সঙ্গে কাজ করবেন তিনি।

ভারতের মাটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হেরে এখন হোয়াইটওয়াশের শঙ্কায় রয়েছে বাংলাদেশ। এমন সময় দীর্ঘদিন ধরে কোচ বঞ্চিত টাইগাদের জন্য সুখবরই দিলো বিসিবি প্রধান পাপন। ঈদের পর থেকে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কাজ শুরু করবেন রোডস।

আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে বিসিবি সভাপতি তার বেক্সিমকো অফিসে প্রায় তিন ঘণ্টা রোডসের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানে নিজের পরিকল্পনা তুলে ধরেন এ ইংলিশ কোচ। যা ভালো লাগায় দু’বছরের জন্য দায়িত্ব দেয়া হয় তাকে। প্রায় ৮ মাস পর কোচ পেল জাতীয় দল।

২০১৯ বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডের মাটিতে। যে কারণে টাইগারদের হেড কোচ নির্বাচন করার ক্ষেত্রে রোডসের নাম প্রথমসারিতে থাকার কথা আগেই জানিয়েছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। কারণ, ৫৩ বছর বয়সী এ ইংলিশ কোচের দীর্ঘদিন কাউন্টি দল উস্টারশায়ারের হয়ে কাজ করা অভিজ্ঞতা রয়েছে।

২০০৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত রোডস উষ্টারশায়ারের কোচ ও টিম ডিরেক্টর ছিলেন। ১১ বছর কাজ করার পর গত বছর চাকুরিচ্যুত হন। ২০১০ সালে সাকিব আল হাসান উস্টারশায়ারের হয়ে খেলার সময় রোডস ছিলেন দলটির ডিরেক্টর অব ক্রিকেট। তবে কোনো জাতীয় দলের দায়িত্ব নেয়ার ক্ষেত্রে এটাই রোডসের প্রথম। ইংল্যান্ডের অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে কোচিং করানোরও অভিজ্ঞতা আছে তার।

ইয়র্কশায়ারে জন্ম নেয়া রোডস ইংল্যান্ডের হয়ে খেলেছেন ১১টি টেস্ট ও ৯টি ওয়ানডে। প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন ৪৪০টি। লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ ৪৭৭টি। খেলোয়াড়ি জীবনে ছিলেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ভারতকেও উড়িয়ে দিলো বাংলাদেশের মেয়েরা

ভারতকেও উড়িয়ে দিলো বাংলাদেশের মেয়েরা

আফগানদের কাছে সিরিজ হারালো বাংলাদেশ

আফগানদের কাছে সিরিজ হারালো বাংলাদেশ

দুই পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

দুই পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের ৭৫ রানের লজ্জাজনক হার

বাংলাদেশের ৭৫ রানের লজ্জাজনক হার