‘স্মিথকে ফিরিয়ে আনা দরকার’

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫৩ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
‘স্মিথকে ফিরিয়ে আনা দরকার’

কিংবদন্তী ক্রিকেটার স্টিভ ওয়াহর মতে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে ফিরিয়ে আনা দরকার। ওয়াহর মতে, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের স্বার্থেই স্মিথকে ফিরিয়ে আনা এবং স্বাগত জানানো দরকার। তবে ডেভিড ওয়ার্নারের জন্য ফেরাটা কঠিন বলেও মন্তব্য করেন সাবেক এ অধিনায়ক।

গত মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে এ জুটি বর্তমানে আন্তর্জাতিক ও প্রাদেশিক এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ আছেন। এ দু’জন ছাড়া ওপেনার ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে নয় মাসের জন্য।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৬৪ টেস্ট খেলা ২৯ বছর বয়সী স্মিথ সম্পর্কে ফক্স স্পোর্টস অস্ট্রেলিয়াকে ওয়াহ বলেন, ‘আমাদের তাকে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে ফিরিয়ে আনা দরকার। তার মানের একজন খেলোয়াড়কে আপনি হারাতে হারাতে পারেন না এবং তুলনামূলকভাবে যেহেতু বয়সে সে এখনো তরুণ তাই তার বদলি হিসেবে আপনি কাউকে আশা করতে পারেন না।’

ওয়াহ বলেন, ‘ভক্তরা এখনো স্মিথকে পূজা করে। অস্ট্রেলিয়ার জনগণ সবকিছু ভুলে যাচ্ছে। স্মিথ একটা ভুল করেছে এবং তার মূল্য সে পেয়েছে। স্মিথ ক্রিকেটকে ভালোবাসে, রান করতে চায়, অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলতে চায় সুতরাং ফিরে যদি ভালো কিছু ম্যাচ খেলতে পারে তবে অতীতে কি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার জনগণ সেটা ভুলে যাবে বলে আমি মনে করি।’

ওয়ার্নার একজন ডায়নামিক ব্যাটসম্যান তবে ম্যাচে বিভেদ সৃষ্টিকারী ব্যক্তি হওয়ায় পুনরায় ফিরলেও গ্রহণযোগ্যতা পেতে তার জন্য কঠিন হবে।
তবে সবকিছুর পরও ওয়ার্নার দ্বিতীয় সুযোগ পাবেন বলে আশা করছেন ওয়াহ।

তবে শীর্ষে ফেরাটা তাদের জন্য সহজ হবে না উল্লেখ করে ওয়াহ বলেন, ‘আমি এমনটাই মনে করি। নিজেদের শোধরানোর জন্য তাদের আপনাদের একটা সুযোগ দিতে হবে। তারা ক্ষমা চেয়েছে এবং অনেক বড় মূল্য পেয়েছে। আমি মনে করছি তাদের সকলের জন্যই ফেরাটা একটা চ্যালেঞ্জ হবে। মানুষ যত সহজ ভাবছে, ততটা নয়। ভালো অবস্থায় ফেরাটা তিনজনের জন্য সত্যিকারভাবেই একট চ্যালেঞ্জ।’


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

নিষেধাজ্ঞার মাঝেই বিয়ের পিঁড়িতে স্মিথ

নিষেধাজ্ঞার মাঝেই বিয়ের পিঁড়িতে স্মিথ

স্মিথের সিপিএল খেলা শেষ

স্মিথের সিপিএল খেলা শেষ

অস্ট্রেলিয়া দলে স্মিথ-ওয়ার্নারকে ‘নিদারুনভাবে প্রয়োজন’

অস্ট্রেলিয়া দলে স্মিথ-ওয়ার্নারকে ‘নিদারুনভাবে প্রয়োজন’

চারদিন শুধু কান্নায় কেটেছে স্মিথের

চারদিন শুধু কান্নায় কেটেছে স্মিথের