ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতেও বাঁচলো না অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৮ এএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৮
ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতেও বাঁচলো না অস্ট্রেলিয়া

সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করে অস্ট্রেলিয়াকে জেতাতে পারেননি দলের ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও সেঞ্চুরি করেছেন ফিঞ্চ। এতেও কোন লাভ হয়নি অসিদের। এ ম্যাচেও ইংল্যান্ডের কাছে ৪ উইকেটে হারলো অস্ট্রেলিয়া।

ব্রিজবেনে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। দলকে ৬৮ রানের সূচনা এনে দিয়ে আউট হন ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। ৪০ বলে ৩৫ রান করেন তিনি। এরপর অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ১৮ ও ট্রাভিস ৭ রান করে ফিরলেও কোন সমস্যা হয়নি অসিদের। কারণ অন্যপ্রান্তে ব্যাট হাতে অবিচল ছিলেন প্রথম ওয়ানডেতে ১০৭ রান করা ফিঞ্চ।

ফিঞ্চকে চতুর্থ উইকেটে দীর্ঘক্ষণ সঙ্গ দিয়েছেন মিচেল মার্শ। চতুর্থ উইকেটে ৮৫ রান যোগ করেন তারা। এর মধ্যে ৩৬ রান অবদান রেখে ফিরে যান মার্শ। তবে অন্যপ্রান্তে ৮৭ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ১০ম সেঞ্চুরি তুলে নেন ফিঞ্চ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে ১০৬ রানে থেমে যান ফিঞ্চ। ১১৪ বলের ইনিংসে ৯বার মাটির স্পর্শে ও একবার হাওয়া ভাসিয়ে বলকে সীমানা ছাড়া করেন ফিঞ্চ।

৪১তম ওভারের প্রথম বলে দলীয় ২১৩ রানে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে ফিঞ্চ ফিরে যাবার পর শেষ দিকের ব্যাটসম্যানরা বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হওয়ায় ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৭০ রান করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। আগের ম্যাচে ৮ উইকেটে ৩০৪ রান করেছিল অসিরা। এ ম্যাচে ইংল্যান্ডের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন দুই স্পিনার আদিল রশিদ ও জো রুট।

জয়ের জন্য ২৭১ রানের লক্ষ্যে শুরুটা ভালো হয়নি ইংল্যান্ডের। আগের ম্যাচে ১৮০ রানের দানবীয় ইনিংস খেলা ওপেনার জেসন রয় ইনিংসের চতুর্থ ডেলিভারিতেই থেমে যান। এবার মাত্র ২ রান করেন তিনি। তার বিদায়ের পর দলকে খেলায় ফেরান আরেক ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও অ্যালেক্স হেলস।

দ্বিতীয় উইকেটে বেয়ারস্টো ও হেলসের ব্যাটিং নৈপুন্যে ম্যাচ জয়ের লড়াইয়ে ফিরে আসে ইংল্যান্ড। তবে ১১৯ থেকে ১২৯ রানের মধ্যে এই দু’ব্যাটসম্যানকে বিদায় দিয়ে ম্যাচের লাগাম অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে নিয়ে আসেন জে রিচার্ডসন। বেয়ারস্টো ৬০ ও হেলস ৫৭ রান করে আউট হন। দ্বিতীয় উইকেটে বেয়ারস্টো ও হেলসকে ১১৭ রান যোগ করেন।

এরপর জো রুট ও অধিনায়ক ইয়োইন মরগান জুটি বেধে আবারো দলের ইনিংস বড় করতে থাকেন। তবে খুব বেশিক্ষণ একসাথে ক্রিজে থাকতে পারেননি তারা। ২১ রানে থাকা মরগানকে তুলে নিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলেন অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক। ২৭ বলে ২১ রান করেন মরগান।

অধিনায়কের বিদায়ের পর জশ বাটলারকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ৬৮ রান এবং ষষ্ঠ উইকেটে ক্রিস ওকসকে নিয়ে অবিচ্ছিন্ন ৪৭ রানের জুটি গড়ে ইংল্যান্ডকে দুর্দান্ত এক জয় এনে দেন রুট। বাটলার ৩২ বলে ৪২ রানে ফিরলেও, রুট ৪৬ ও ওকস ২৭ বলে ৩৯ রান তুলে অপরাজিত থাকেন। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে স্টার্ক ৪টি ও রিচার্ডসন ২টি উইকেট নেন। ম্যাচের সেরা হয়েছেন রুট।

এ জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড। সিডনিতে আগামী ২১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
অস্ট্রেলিয়া : ২৭০/৯, ৫০ ওভার (ফিঞ্চ ১০৬, মার্শ ৩৬, রুট ২/৩১)।
ইংল্যান্ড : ২৭৪/৬, ৪৪.২ ওভার (বেয়ারস্টো ৬০, হেলস ৫৭, স্টার্ক ৪/৫৯)।
ফল : ইংল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : জো রুট (ইংল্যান্ড)।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

হাথুরুর শ্রীলঙ্কাকে ১৬৩ রানে হারালো বাংলাদেশ

হাথুরুর শ্রীলঙ্কাকে ১৬৩ রানে হারালো বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ পাকিস্তান

নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ পাকিস্তান

১১ হাজারি ক্লাবে তামিম ইকবাল

১১ হাজারি ক্লাবে তামিম ইকবাল

নাফিসকে স্পর্শ করলেন বিজয়

নাফিসকে স্পর্শ করলেন বিজয়