ভবিষ্যতে আরও সতর্ক থাকবো : সাকিব

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৭ এএম, ১৭ মার্চ ২০১৮
ভবিষ্যতে আরও সতর্ক থাকবো : সাকিব

কলম্বোর প্রেমাদাসায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে উত্তেজনাকর ম্যাচে জয় পেয়ে ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। তবে এ মাচে জন্ম দিয়েছে অনেক নাটকীয় ঘটনাকীয় ঘটনার।

সারা ম্যাচে উত্তেজনা থাকলেও সব যেন জমে ছিল শেষ ওভারের জন্য। উত্তেজনা এমন পর্যায়ে চলে গিয়েছিল যে, নো বলের নাটকের এক পর্যায়ে খেলা ছেড়ে মাঠের বাইরে চলে আসতে চেয়েছিলেন টাইগার ব্যাটসম্যাটরা। আর এ আসার নেপথ্যে ছিলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সাকিব ঈশারায় মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও রুবেল হোসনকে চলে আসতে বলেন।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারলেই ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে বিদায় নিতে হতো বাংলদেশের। এমন সমীকরণের ম্যাচে বাংলাদেশ উল্টো শ্রীলঙ্কাকেই বিদায় করে দিয়েছে।

ম্যাচের শেষ ওভারে জয়ের জন্য বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ১২ রান। প্রথম দুই বল ব্যাটসম্যানের মাথার উপর দিয়ে বল করলেও ফিল্ড আম্পায়ার ‘নো’ বলের কল দেননি। যে কারণে খেলতে অস্বীকৃতি জানায় বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। ‘নো’ বলের এ নাটক নিয়ে খেলা কিছু সময় বন্ধও থাকে। ব্যাটিংয়ে থাকা মাহমুদউল্লাহ এবং রুবেলকে মাঠ ছেড়ে চলে আসতে ঈশারা করেন অধিনায়ক সাকিব।

উত্তেজনাকর ম্যাচ শেষে সাকিব বলেন, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে, অনেক বেশি উত্তেজনা, অনেক আবেগ এখানে থাকে। যে কারণে আপনি বেশি আশা করতে পারবেন না। এ জন্য শ্রীলঙ্কাকে ক্রেডিট দিতে হয়। তাদের দ্রুত পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছি আমরা। আবার আমরা ব্যাটিংয়ে শুরুতে উইকেট হারিয়ে স্নায়ু চাপে পড়ে গিয়েছিলাম। সেই চাপ সামলিয়ে খেলায় ফিরে আবারও চাপের মুখে পড়েছি। তবে আমরা আমাদের স্নায়ুচাপ সামলিয়ে খেলতে পেরেছি।

উত্তেজনার মুহূর্তে ব্যাটসম্যানদের চলে আসার ঈশারা করার বড় ধরনের অপরাধ মনে করা হচ্ছে। যা আইসিসি থেকে বড় ধরনের রাযও আসতে পারতো সাকিবের বিরুদ্ধে। তাই সংবাদ সম্মেলনে বার বার সেই বিষয়টি চলে আসে।

সাকিব বলেন, ‘মাঠে আমাদের ভালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। কিন্তু মাঠের বাইরে আমরা ক্রিকেটাররা একে অপরের বন্ধুর মতো। আসলে আমি আমার আবেগ ধরে রাখতে পারিনি। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হিসেবে ভবিষ্যতে আমকে আরও সতর্ক থাকতে হবে।

খেলা শেষে নো বলের সেই নাটক নিয়ে ম্যাচ সেরা মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আজ মাঠে যা ঘটেছে এটা, আমি ভুলে যেতে চাই। এটা আমার কাছে শুধুই অতীত।’

বাম হাতের আঙুলে ইনজুরির কারণে দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট সিরিজে খেলতে পারেননি সাকিব আল হাসান। এমনকি নিদাহাস ট্রফিতে তাকে রাখা হলেও ইনজুরির কারণে প্রথম তিন ম্যাচে খেলতে পারেননি তিনি। সাকিবকে দলে পেয়ে বেশ চাঙ্গাই ছিল বাংলাদেশ। যা শেষ পর্যন্ত জয়ের মাধ্যমে তা আবারও প্রমাণিত হয়েছে।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমে ‘ভাঙচুর’

শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমে ‘ভাঙচুর’

সাকিব-নুরুল হাসানকে জরিমানা

সাকিব-নুরুল হাসানকে জরিমানা

ম্যাচ জিতিয়ে সেরা হলেন মাহমুদুল্লাহ

ম্যাচ জিতিয়ে সেরা হলেন মাহমুদুল্লাহ