কুমিল্লার বিদায়, চতুর্থ দল হিসেবে প্লে-অফে খুলনা

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৮:৫৫ এএম, ১০ জানুয়ারি ২০২০
কুমিল্লার বিদায়, চতুর্থ দল হিসেবে প্লে-অফে খুলনা

জিতলেই চতুর্থ ও শেষ দল হিসেবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে প্লে-অফের টিকিট পাবে দল। এমন সমীকরণে ব্যাট হাতে অনবদ্য ৯৮ রানের ইনিংস খেলে দলকে প্লে-অফে তুললেন খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) দিনের দ্বিতীয় ও টুর্নামেন্টের ৪০তম ম্যাচে কুমিল্লা-ওয়ারিয়র্সকে ৯২ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে খুলনা। এ জয়ে প্লে-অফ নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি ঢাকা প্লাটুনকে হটিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে গেছে খুলনা। অন্যদিকে আসরে পঞ্চম স্থানে থেকেই টুর্নামেন্ট শেষ করলো কুমিল্লা।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের চতুর্থ বলেই ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তকে হারায় খুলনা। ১ রান করে ফিরেন শান্ত। এরপর ইনফর্ম রাইল রুশো ১১ বলে ২৪ রান করে থামেন। দলীয় ৩৩ রানে রুশো বিদায়ের পর শক্ত হাতে হাল ধরেন আরেক ওপেনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও অধিনায়ক মুশফিক।

মারমুখী মেজাজে ব্যাট করে ৯১ বলে অবিচ্ছিন্ন ১৬৮ রান যোগ করেন তারা। পরে আহত হয়ে অবসর নেন মিরাজ। আহত অবসরের আগে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৪৫ বলে ৭৪ রান করেন মিরাজ। ৩৩ বলে হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মিরাজ।

৩৮ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করা মুশফিক শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়েন। তার ৫৭ বলের ইনিংসে ১২টি চার ও ৩টি ছক্কা ছিল। ১টি ছক্কায় ৪ বলে অপরাজিত ৭ রান করেন আফগানিস্তানের নাজিবুল্লাহ জাদরান। ফলে ২ উইকেটে ২১৮ রানের সংগ্রহ পায় খুলনা। বল হাতে কুমিল্লার ইনিংসে ইরফান হোসেন ও আফগানিস্তানের মুজিব-উর-রহমান ১টি করে করে উইকেট নেন।

২১৯ বড় টার্গেটে খেলতে নেমে ব্যাট হাতে শুরুতেই হোঁচট খায় কুমিল্লা। খুলনার বোলারদের তোপে বড় ইনিংস খেলার সুযোগ পাননি তারা। আগের ম্যাচে হাফ-সেঞ্চুরি পাওয়া সাব্বির রহমান নিজের মুখোমুখি হওয়া প্রথম বলেই ফিরে যান।

এরপর দ্রুত দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যান জিল ১০ ও ডেভিড মালান ৮ রান করে ফিরেন। ফলে ৩২ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে কুমিল্লা। শ্রীলঙ্কার উপুল থারাঙ্গার ৩২ রান টপ-অর্ডারের মধ্যে সর্বোচ্চ ছিল। দলীয় ৬০ রানে আউট হন থারাঙ্গা।

পরবর্তীতে মিডল-অর্ডারে ছোট ছোট ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন অধিনায়ক সৌম্য সরকার-ইয়াসির আলি ও ফারদিন হাসান। সৌম্য ১০, ইয়াসির ২০ ও ফারদিন ২২ রান করেন। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১২৬ রান করে কুমিল্লা।

খুলনার পেসার শহিদুল ইসলাম ২৭ রানে ৩ উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট শিকার করেন পাকিস্তানের আমির ও স্পিনার আমিনুল ইসলাম। ম্যাচ সেরা হয়েছেন খুলনার মুশফিক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
খুলনা টাইগার্স : ২১৮/২, ২০ ওভার (মুশফিক ৯৮*, মিরাজ ৭৪ আহত অবসর, মুজিব ১/১৮)
কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স : ১২৬/৯, ২০ ওভার (থারাঙ্গা ৩২, ফারদিন ২২, শহিদুল ৩/২৭)।

ফল : খুলনা টাইগার্স ৯২ রানে জয়ী
ম্যাচ সেরা : মুশফিকুর রহিম (খুলনা টাইগার্স)।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

বিদায় বেলায় ঢাকাকে হারিয়ে দিল রংপুর

বিদায় বেলায় ঢাকাকে হারিয়ে দিল রংপুর

দলনেতা মুশফিকের প্রশংসায় ফ্রাইলিঙ্ক

দলনেতা মুশফিকের প্রশংসায় ফ্রাইলিঙ্ক

যতই দিন যাচ্ছে আরও তরুণ হচ্ছি : ক্রিস গেইল

যতই দিন যাচ্ছে আরও তরুণ হচ্ছি : ক্রিস গেইল

আবারও সেঞ্চুরি বঞ্চিত মুশফিক

আবারও সেঞ্চুরি বঞ্চিত মুশফিক