সম্ভাবনাময় তরুণ পেসার আবু জায়েদ

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪৭ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৭
সম্ভাবনাময় তরুণ পেসার আবু জায়েদ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ঢাকার প্রথম পর্বের খেলা শেষে হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর)। দুইদিন বিরতি দিয়ে শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) থেকে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের আবারও শুরু বিপিএলের পঞ্চম আসরের তৃতীয় পর্ব।

চলমান এ আসরে মোট ২১টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে বৃষ্টির কারণে দুটি ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। মোট সাতটি ফ্রাঞ্চাইজির মধ্যে ৬ ম্যাচে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। সর্বোচ্চ ৮ ম্যাচ খেলে ৪ জয়ের ৮ এবং একটি পরিত্যক্ত ম্যাচের এক পয়েন্টসহ মোট ৯ পয়েন্ট নিয়ে টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় স্থানের রয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস।

বিপিএলে এবার দেশি ব্যাটসম্যানদের চেয়ে বিদেশি ব্যাটসম্যানদের দাপট অব্যাহত রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম বোলারদের। শীর্ষ পাঁচ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যেখানে প্রথম চারজনই বিদেশি সেখানে শীর্ষ পাঁচ বোলাদের মধ্যে তিনজনই বাংলাদেশি। তার মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন বাংলাদেশি পেসার আবু জায়েদ।

আসরে এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে ১২ উইকেট শিকার করে টুর্নামেন্টে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন খুলনা টাইটান্সের হয়ে খেলা বাংলাদেশি বোলার আবু জায়েদ। তরুণ এ প্রতিভাবান পেসার ধারাবাহিকভাবে উইকেট শিকার করে ইতোমধ্যে নিজের জাত চিনিয়েছেন।

সিলেটে জন্মগ্রহণ করা আবু জায়েদ আলো ছড়াচ্ছেন খুলনা টাইটানসের হয়ে। প্রতি ম্যাচেই তার ধারাবাহিকতা বজায় রয়েছে। চিটাগাংয়ের বিপক্ষে ম্যাচে হয়েছেন ম্যান অব দ্যা ম্যাচ। এছাড়া প্রথম ম্যাচেই ৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে তুলে নেন ২ উইকেট। পরের ম্যাচে একটু খরুচে হলেও ঢাকা পর্বের নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে তুলে নিয়েছেন প্রতিপক্ষের ৪টি উইকেট।
Abu-Jayed

বিপিএলের চলমান আসরে খুলনা টাইটান্সের এ তরুণ পেসার আবু জায়েদ এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে ১২ উইকেট শিকার করেছেন। যা আসরের এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। এছাড়া ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলা শহিদ আফ্রিদি ৪ ম্যাচ খেলে ১১ উইকেট শিকার করে রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। একই দলের হয়ে খেলা আবু হায়দার রনি ৭ ম্যাচ খেলে ১১ উইকেট শিকার করে তৃতীয়, ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ৭ ম্যাচ খেলে ১০ উইকেট শিকার করে চতুর্থ এবং সুনিল নারাইন ৬ ম্যাচ খেলে ৮ উইকেট শিকার করে পঞ্চমস্থানে রয়েছেন।

আবু জায়েদ বিপিএল তৃতীয় আসরে খেলেছেন সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে রংপুর রাইডার্সের হয়ে। সেখানেও বল হাতে দারুন পারফর্ম করে সবার নজরে আসেন। এরপর জাতীয় ক্রিকেট লিগ ২০১৬-১৭ আসরে সর্ব্বোচ্চ উইকেট স্বীকার করেন। তবে বিপিএলের চতুর্থ আসরে দল পাননি তিনি। পরে অবশ্য রাহিকে তানভীর হায়দারের ইনজুরিতে ঢাকা ডায়নামাইটস দলে ভেড়ায় তাকে।

আসরে সুযোগ পেয়ে নিজের সেরাটা দিয়ে হয়েছিলেন সেরা ইকোনমিকাল পেস বোলার। যা কিনা ঢাকা ডায়নামাইটসকে চ্যাম্পিয়ন হতে রেখেছিলেন বিরাট ভুমিকা। এছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে পেয়েছিলেন পেস বোলারদের মধ্যে সর্ব্বোচ্চ উইকেট।

আবু জায়েদ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও উজ্জ্বল। ৫৬ ম্যাচে ৯৬ ইনিংস খেলে উইকেট নিয়েছেন ১৭১টি। ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ১০ বার, চার উইকেট সাত বার। ইনিংসে সেরা বোলিং ২৫/৬ এবং ম্যাচে ৪৩/৯।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ২০১২ সালের অস্ট্রেলিয়া সফরেও দলের সঙ্গে ছিলেন আবু জায়েদ। সেই থেকে শুরু করেছিলেন বল হাতে দাপট দেখানো যা আজও দেখিয়ে যাচ্ছেন। যোগ্য সঙ্গী হয়ে ওঠছেন বাংলাদেশের জাতীয় দলের আগামী তাসকিন-রুবেল-মোস্তাফিজদের।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

বিধ্বংসী রূপ দেখালেন আরিফুল

বিধ্বংসী রূপ দেখালেন আরিফুল

সিলেট-ঢাকা পর্ব শেষে কে কোথায়

সিলেট-ঢাকা পর্ব শেষে কে কোথায়

জরিমানার কবলে সাকিব-হাসান

জরিমানার কবলে সাকিব-হাসান

‘বিপিএলে ব্যবসায়ীরা দেশ ছেড়ে ভাগবে’

‘বিপিএলে ব্যবসায়ীরা দেশ ছেড়ে ভাগবে’