ইংল্যান্ডের সাথে টাই করলো হৃদয়-সাকিবরা

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৯:৫৮ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০১৯
ইংল্যান্ডের সাথে টাই করলো হৃদয়-সাকিবরা

ফাইল ছবি

ডান-হাতি ব্যাটসম্যান তৌহিদ হৃদয়ের অনবদ্য সেঞ্চুরিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের সপ্তম ও টুর্নামেন্টের দশম ম্যাচে ইংল্যান্ড অনুর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে টাই করেছে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৯ দল। ফলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ।

ফাইনাল নিশ্চিত করা বাংলাদেশ ৭ খেলায় ৪ জয়, ১টি করে হার-টাই ও পরিত্যক্ত ম্যাচে ১০ পয়েন্ট অর্জন করে বাংলাদেশ।অন্যদিকে ৭ খেলায় ১ জয়, ৫ হার, ১ টাই নিয়ে ৩ পয়েন্টে টেবিলের তলানিতে রয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত। ৬ খেলায় ৩ জয়, ২হার ও ১টি পরিত্যক্ত ম্যাচের কারণে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে থেকে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ভারত।

বাংলাদেশ সময় সোমবার (৫ আগস্ট) দিনগত রাতে বেকেনহামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস হেরে প্রথমে বোলিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। ব্যাট হাতে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। ওপেনার বেন চার্লসওর্থকে শূন্য হাতে ফিরিয়ে দেন ডান-হাতি পেসার তানজীম হাসান সাকিব। তবে আরেক ওপেনার ও উইকেটরক্ষক জর্ডান কক্স এক প্রান্ত আগলে খেলার চেষ্টা করেন।

মিডল-অর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যান দ্রুত ফিরলেও রানের চাকা সচল রেখেছিলেন কক্স। মিডল-অর্ডারের ব্যর্থতায় এক পর্যায়ে ১৩২ রানেই ৬ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। তবে ৮ নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে সপ্তম উইকেটে কক্সকে দারুণভাবে সঙ্গ দেন অধিনায়ক জর্জ ব্যালডারসন।

সপ্তম উইকেটে ১০৮ রানের জুটি গড়েন তারা। ব্যালডারসন ৬টি চারে ৫০ বলে ৫৬ রান করে ফিরলেও সেঞ্চুরি তুলে নেন কক্স। শেষ পর্যন্ত ১২২ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। তার ১৪৩ বলের ইনিংসে ৮টি চার ও ২টি ছক্কা ছিল। ফলে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৬ রানের সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড। বাংলাদেশের রাকিবুল হাসান ৩৩ রানে ৩৩ উইকেট নেন। ৬৮ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন সাকিব।

জবাবে ৬১ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। এ অবস্থায় দলের হাল ধরেন হৃদয় ও শাহাদাত হোসেন। চতুর্থ উইকেটে ১৬০ রানের জুটি গড়েন তারা। এতে বাংলাদেশ জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে। শেষ ২৭ বলে ৩৬ রান প্রয়োজন পড়ে বাংলাদেশের।

দলীয় ২২১ রানে থেমে যান শাহাদাত। ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ১০৩ বলে ৭৬ রান করেন তিনি। শাহাদাতের বিদায়ের পর দ্রুত আরও দু’উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তারপরও হৃদয়ের ব্যাটিং নৈপূণ্যে জয়ের আশা ছিল বাংলাদেশের।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৯ রান দরকার পড়ে বাংলাদেশের। সেঞ্চুরির জন্য ৩ রান প্রয়োজন হৃদয়ের। সেঞ্চুরির স্বাদ নিতে পারলেও দলকে জয় এনে দিতে পারেননি হৃদয়। ৯টি চারে ১৩১ বলে ১০৪ রানে অপরাজিত থাকেন হৃদয়। ইংল্যান্ডের ডান-হাতি পেসার লুক ডোনেথি ৬০ রানে ৩ উইকেট নেন।


শেয়ার করুন :