নার্ভাস রিয়ালের কষ্টার্জিত জয়

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৮ এএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
নার্ভাস রিয়ালের কষ্টার্জিত জয়

মার্কো আসেনসিওর একমাত্র গোলে অ্যাস্পানেয়লের বিপক্ষে লা লিগায় কষ্টাজির্ত জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। লিগে পাঁচ ম্যাচে চারটি জয় ও একটি ড্রসহ ১৩ পয়েন্ট নিয়ে এখন টেবিলের শীর্ষে রয়েছে সেলেসাওরা।

সানতিয়াগো বার্নাব্যুতে এ ম্যাচের পর জুলেন লোপেতেগুয়ের রক্ষণভাগের দুর্বলতা নিয়ে আরও একবার প্রশ্ন উঠেছে। তার অধীনে এ পর্যন্ত রিয়ালের খেলা ৬টি ম্যাচেই এ দুর্বলতা চোখে পড়েছে। এর মধ্যে গত সপ্তাহে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে লা লিগায় ড্র হওয়া ম্যাচটিও রয়েছে।

গতকালের ম্যাচে মূল একাদশ থেকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছিল গ্যারেথ বেল, মার্সেলো ও ডানি কারভাহালকে। এদের মধ্যে কারভাহাল বদলি বেঞ্চেও ছিলেন না। এ তিনজনই অবশ্য বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোমার বিপক্ষে জয়ী ম্যাচটিতে দলে ছিলেন। কিন্তু এ একই সুযোগ যদি তারা আগামী সপ্তাহে সিটি ডার্বিতে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে দেয় তবে নিঃসন্দেহে তার মূল্য দিতে হবে।

এর আগে দিনের প্রথম ম্যাচে গেতাফেকে ২-০ গোলে পরাজিত করেছে অ্যাথলেটিকো। ম্যাচ শেষে মাদ্রিদ বস বলেছেন, ‘ম্যাচে সবাই বেশ নার্ভাস ছিল। শেষ ১৫ মিনিট আমরা ম্যাচের নিয়ন্ত্রনও হারিয়ে ফেলেছিলাম। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পর যে ম্যাচগুলো থাকে সেখানে বিপদ হবার সম্ভাবনা সবসময়ই থাকে, আমরা সবাই এই বিষয়টা জানি। সে কারণেই হয়তো নার্ভাসনেস কাজ করে।’

কারভাহালের অনুপস্থিতিতে রিয়ালের জার্সি গায়ে অভিষেক হয়েছে আলভারো ওড্রিওজোলার। রিয়াল সোসিয়েদাদ থেকে এবারের গ্রীষ্মেই তিনি মাদ্রিদে যোগ দিয়েছেন। এদিকে গোলবারে আবারও লোপেতেগুয়ে কেইলর নাভাসের জায়গায় থিবাট কুর্তোয়াকে ফিরিয়ে এনেছিলেন। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে দুইবার গোলের সুযোগ পেয়েছিল অ্যাস্পানেয়ল। রাফায়েল ভারানের বাজে একটি হেড থেকে প্রথমবার বল পেয়েও পাবলো পিয়াত্তি গোল করতে ব্যর্থ হন। এর কিছুক্ষণ পরেই হার্নান পেরেজের শট রুখে দেন কুর্তোয়া। ফিরতি বলে ডিডাচ ভিয়ার বল ব্লক করেন কাসেমিরো। এরপর অবশ্য কিছুটা উজ্জীবিত হয়ে ওঠে রিয়াল।

তারই ধারাবাকিহতায় ৪১ মিনিটে লুকা মড্রিচের সহায়তায় আসেনসিও জোড়ালো শটে রিয়ালকে এগিয়ে দেন। অফ সাইডের অযুহাতে রেফারি মাতেও লাহোজ গোলটি বাতিল করলেও ভিএআর প্রযুক্তির সহায়তায় রিয়াল বেঁচে যায়।

দিনের অপর ম্যাচে অবশ্য গেতাফের বিপক্ষে অ্যাথলেটিকোর জয়টা সহজেই এসেছে। ১৪ মিনিটে গেতাফে গোলরক্ষক ডেভিড সোরিয়ার আত্মঘাতি গোলে এগিয়ে যায় সফরকারী অ্যাথলেটিকো। এরপর ৬০ মিনিটে থমাস লেমারের গোলে জয় নিশ্চিত হয় দাদের। ক্লাবের হয়ে এটি ছিল ফ্রেঞ্চম্যান লেমারের প্রথম গোল।

সাওল নিগুয়েজকে বিপদজনকভাবে ট্যাকেল করার অপরাধে ৬৭ মিনিটে লাল কার্ড পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যান গেতাফের মিডফিল্ডার ইভান আলেয়ো। যে কারণে বাকি সময়টা ১০জন নিয়েই খেলতে হয়েছে স্বাগতিকদের। কিন্তু এ সুযোগটি বাকি ম্যাচে কাজে লাগাতে পারেনি অ্যাথলেটিকো।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে কস্তা

ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে কস্তা

জমকালো অনুষ্ঠানে আলোতে এলো বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ট্রফি

জমকালো অনুষ্ঠানে আলোতে এলো বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ট্রফি

চুক্তির মেয়াদ বাড়ালো তাবারেজের

চুক্তির মেয়াদ বাড়ালো তাবারেজের

ঘুষ-দুর্নীতিতে আজীবন নিষিদ্ধ ফিফার তিন কর্মকর্তা

ঘুষ-দুর্নীতিতে আজীবন নিষিদ্ধ ফিফার তিন কর্মকর্তা