বাংলাদেশের পক্ষে যত হিট উইকেট

পার্থ প্রতীম রায় পার্থ প্রতীম রায় প্রকাশিত: ০৬:০৮ পিএম, ১৮ জুলাই ২০২১
বাংলাদেশের পক্ষে যত হিট উইকেট

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ এবং জিম্বাবুয়ে। ব্যাটিংয়ে নেমে হিট আউট হয়ে ফিরে যান জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর। জিম্বাবুয়ের ইনিংসের ২৪তম ওভারের দ্বিতীয় বলে নিজের ভুলে ব্যাট দিয়ে স্ট্যাম্পে আঘাত করেন টেইলর। আর এতেই সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে বাংলাদেশের বিপক্ষে হিট আউটের শিকার হন তিনি।

ব্যাটসম্যানের শরীর কিংবা ব্যাটের আঘাতে স্ট্যাম্প ভাঙলে তাকে আউট হিসেবে ঘোষণা করেন আম্পায়ার। এ আউটকেই হিট উইকেট হিসেবে গণ্য করা হয়। বোল্ড, ক্যাচ কিংবা লেগ বিফোর উইকেটের মত এ উইকেটও বোলারের কৃতিত্ব হিসেবে গণনা করা হয়। তবে আদৌ এতে বোলারের কৃতিত্ব থাকে কিনা তা নিয়ে বেশ সন্দেহ কিংবা বিতর্ক রয়েছে।

বর্তমানে ব্যাটসম্যানদের ভুলের কারণে হিট উইকেট হয়। এক সময় হিট উইকেটে থাকতো বোলারদের অবদান। বোলারদের গতি-বাউন্স এবং বলের বিভিন্ন লেন্থের কারণে ব্যাটসম্যানরা পপিং ক্রিজের অনেক বেশি ভিতরে ঢুকে যেতে বাধ্য হত। এ কারণেই মূলত হিট উইকেটে বোলারদের কৃতিত্ব হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তবে বর্তমানে বোলারদের চূড়ান্ত সফলতার থেকে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দায় বেশি। ​

বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিহাসে হিট উইকেট শিকারের ঘটনা ঘটেছে সাতবার। বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে প্রথমবারের মত হিট উইকেট শিকার করেন সাবেক কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা। ২০০৬ সালে চট্টগ্রামে স্কটিশ ব্যাটসম্যান রায়ান ওয়াটসনকে হিট উইকেটের মাধ্যমে শিকার করেন মাশরাফি।

মাশরাফির এ ঘটনার তিন বছর দ্বিতীয় বারের মত বাংলাদেশের বিপক্ষে হিট আউট হন রায়ান অস্টিন। ক্যারিবিয়ান এ ব্যাটসম্যান টেস্টে হিট আউটের শিকার হন। তার সময় বোলার ছিলেন পেসার শাহাদাত হোসেন।

২০১১ সালে রুবেল হোসেন তৃতীয় বাংলাদেশি বোলার হিসেবে হিট আউটের মাধ্যমে ম্যালকম ওয়ালারকে প্যাভিলিয়নে ফেরান। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বুলাওয়েতে ওয়ানডে ম্যাচে এ কীর্তি গড়েন তিনি।

একই বছর ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ড্যারেন স্যামি বাংলাদেশের বিপক্ষে হিট আউটের শিকার হন। এবার বোলিং প্রান্তে ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ২০১১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে এ কীর্তি গড়েন তিনি।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ব্যাটসম্যান আমজাদ জাভেদকে ২০১৬ সালে হিট আউটের মাধ্যমে শিকার করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এবার টেস্ট বা ওয়ানডে ফরম্যাট না, খেলা হয়েছিল টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এটিই বাংলাদেশের একমাত্র হিট আউট শিকার।

তিন বছর পর পাকিস্তানের বিপক্ষে হিট আউটের মাধ্যমে উইকেট শিকার করেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। ২০১৯ সালে লর্ডসে হিট আউটের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান ইমাম-উল-হক।

সর্বশেষ ২০২১ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে হিট উইকেটের শিকার হয়েছেন ব্রেন্ডন টেইলর। এবার ব্রেন্ডন টেইলরকে ফিরিয়েছেন তরুণ পেসার শরিফুল ইসলাম। হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এ রেকর্ড গড়েন তিনি।

স্পোর্টসমেইল২৪/পিপিআর

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কা-ভারত ম্যাচে ৩ অভিষেক

শ্রীলঙ্কা-ভারত ম্যাচে ৩ অভিষেক

বিশ্বকাপে ভারতের জন্য বড় সমস্যা হবে ক্লান্তি

বিশ্বকাপে ভারতের জন্য বড় সমস্যা হবে ক্লান্তি

বায়ো-বাবলে ক্রিকেটাররা সার্কাসের জন্তু : তাবারিজ শামসি

বায়ো-বাবলে ক্রিকেটাররা সার্কাসের জন্তু : তাবারিজ শামসি

শেষ ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জেতালেন গ্লাস

শেষ ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জেতালেন গ্লাস