ল্যাঙ্গারের তুরুপের তাস স্মিথ

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৭:৫৬ এএম, ২৬ আগস্ট ২০১৯
ল্যাঙ্গারের তুরুপের তাস স্মিথ

ইনজুরির কারণে হেডিংলিতে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে খেলতে পারেননি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। তবে চতুর্থ টেস্টে স্মিথ খেলতে পারলে দলের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে এবং আবারো জয়ের ধারায় দল ফিরবে বলে আশাবাদী অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার।

তিনি বলেন, ‘স্মিথ দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। দীর্ঘদিন পর টেস্ট খেলতে নেমে সে যা করেছে তা ছিল চোখে পড়ার মত। হেডিংলিতে স্মিথ না থাকাতে দল কিছুটা চিন্তিত ছিল। তবে নিজেদের সেরাটা দেয়ার জন্য সবাই উদগ্রীব ছিল; যা মাঠে প্রমাণিত। ভাগ্য সাথে না থাকায় এবং স্টোকসের বীরত্বের কাছে হেরেছি আমরা।’

দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলে ইংল্যান্ডকে অ্যাশেজ সিরিজে সমতায় ফেরান অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। স্টোকসের ওই বীরত্বপূর্ণ ইনিংসটি চোখের সামনে এখনও বিদ্যমান ক্রিকেট বিশ্বের। এক প্রান্ত আগলে অপরাজিত ১৩৫ রান করে ইংল্যান্ডকে ১ উইকেটে ম্যাচ জয়ের স্বাদ দেন স্টোকস, যা টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে সেরা পাঁচটি ইনিংসের তালিকায় অনায়াসেই জায়গা পাবে।

স্টোকসের দুর্দান্ত ইনিংসের কাছে হারের পরও ম্যানচেষ্টারে চতুর্থ ম্যাচে ঘুড়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছেন অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ‘স্মিথ’কে তুরুপের তাস বানাচ্ছেন তিনি।

স্মিথ ফিরলেই দল নিজেদের সেরা রুপে ফিরবে বলে মনে করেন ল্যাঙ্গার। তিনি বলেন, ‘স্মিথ ফিরবে ম্যানচেস্টারে, এটি এখনও বলা যাচ্ছে না। অনুশীলন ম্যাচের পর বোঝা যাবে স্মিথের ফিটনেস কন্ডিশন। তবে আমরা আশাবাদী চতুর্থ টেস্টেই ফিরতে যাচ্ছেন স্মিথ। আর স্মিথের প্রত্যাবর্তনেই দল ঘুড়ে দাঁড়াবে বলে আমি আশাবাদী। তবে স্মিথের কাছ থেকে বড় কিছু প্রত্যাশা না করাই ভালো। বড় ধরনের ধকল কাটিয়ে আবারো দলে ফিরছে সে। কিন্তু সে যে ধরনের খেলোয়াড়, তাতে ব্যাট হাতে নামার সুযোগ পেলে সেরা ইনিংসই খেলবে।’

প্রথম টেস্টে স্মিথের কল্যাণে ম্যাচ জেতে অস্ট্রেলিয়া। বলতে গেলে একাই দলকে জিতিয়েছেন স্মিথ। বার্মিংহামে ওই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৪৪ ও ১৪২ রান করে অসিরা। তাই ২৫১ রানে ম্যাচও জেতে অস্ট্রেলিয়া। আর দ্বিতীয় ইনিংসে দলীয় স্কোর ৭ উইকেটে ৪৮৭ রান ছিল অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু পরের দুই টেস্টের চার ইনিংসে আড়াইশ’র বেশি করতে পারেনি অসিরা। তাই দলের ব্যাটসম্যানদের নিয়ে চিন্তার ভাঁজ রয়েছে ল্যাঙ্গারের।

তিনি বলেন, ‘একটি বিষয় স্পষ্ট, এখন পর্যন্ত ব্যাটসম্যানরা নিজেদের সেরাটা দিতে পারেনি। আমি সিরিজ শুরুর আগেই বলেছিলাম, অ্যাশেজে ভালো করতে হলে ব্যাটসম্যানদের ভালো করতে হবে। কিন্তু এখনও আমাদের ব্যাটিং মোটেও ভালো হয়নি। তবে চতুর্থ টেস্টের আগে আমরা বেশ কিছু সমস্যা খুঁজে বের করতে পেরেছি।

হেডিংলির দুই ইনিংসে ৩১ রান করেছেন উসমান খাজা। চলমান সিরিজের তার গড় ২০ দশমিক ৩৩। তৃতীয় টেস্টের আগে ফর্ম নিয়ে চিন্তায় ছিলেন ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারও। প্রথম দুই টেস্টে তার ব্যাটিং গড় ছিল ১৩ দশমিক ১৬। কিন্তু হেডিংলি টেস্টের প্রথম ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন তিনি। পরের ইনিংসে শূন্য হাতে ফেরেন ওয়ার্নার।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ হওয়ার আবেদন মিসবাহর

পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ হওয়ার আবেদন মিসবাহর

আজ থেকে শুরু ইউএস ওপেন

আজ থেকে শুরু ইউএস ওপেন

ওপেনার নিয়ে দ্বিধা, বোলিং কোচ দেখতে চান আরও পেসার

ওপেনার নিয়ে দ্বিধা, বোলিং কোচ দেখতে চান আরও পেসার

রিয়াল বেতিসকে উড়িয়ে দিল বার্সেলোনা

রিয়াল বেতিসকে উড়িয়ে দিল বার্সেলোনা