শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে কী ভাবছে বাংলাদেশ

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০২:৪৩ পিএম, ০৫ জুন ২০২০
শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে কী ভাবছে বাংলাদেশ

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া ক্রিকেট বিশ্ব আস্তে আস্তে আলোর মুখ দেখছে। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা ভালো হওয়ায় অনুশীলনের ফিরেছে বেশ কয়েকটি ক্রিকেট দল। তারই ধারাবাহিকতায় ক্রিকেটারদের অনুশীলনে ফেরানোর চিন্তা-ভাবনা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

করোনার কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শেষভাগের পাকিস্তান সফর, আয়ারল্যান্ড সফর এবং জুনে বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়া দলের সফর স্থগিত হয়ে গেছে। সূচিতে থাকা এ তিনটি সফর স্থগিত হলেও ঝুলে আছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর।

সফর সূচি অনুযায়ী জুলাই মাসে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কায় যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বাংলাদেশকে আতিথ্য দিতে প্রস্তুত স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের আগে দেশটিতে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, জুলাই মাসের সিরিজটি নিয়ে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আমরা সিরিজটি নিয়ে সুবিধা-অসুবিধাগুলো বোঝার চেষ্টা করছি। আশা করি, শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হবে।

এদিকে শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট কর্তাদের মধ্যে পক্ষে-বিপক্ষে দু’ধরনের মতো রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল যাক বা না যাক, টাইগার ক্রিকেটারদের অনুশীলনে ফেরাতে পরিকল্পনা করছে বিসিবি

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিতাদেশ থেকে খেলায় ফেরার তিনটি উপায় দেখে বিসিবি। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ দিয়ে অথবা ঘরের মাঠে দ্বিপক্ষীয় কোন সিরিজ খেলে বা করোনায় অপেক্ষাকৃত কম আক্রান্ত কোনো দেশে সফর করে। সেক্ষেত্রে সূচিতে থাকা শ্রীলঙ্কা সফর নিয়েই বেশি কথা হচ্ছে। যদিও এখনো চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে দলের ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফদের নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আলাদা রাখার পরিকল্পনা করছে বিসিবির মেডিকেল বিভাগ। যদি তাই হয় তাহলে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি ভবন হতে পারে টাইগার ক্রিকেটারদের অস্থায়ী আবাসস্থল। ক্যাম্প চলাকালীন সময়ে সেখানেই দলের সবাইকে থাকতে হবে।

লঙ্কান বোর্ড আশা, জুনের শেষ দিকে ভারতের সফর শেষে জুলাইয়ে বাংলাদেশ তাদের দেশে খেলতে যাবে। সে লক্ষ্য নিয়েই তারা অনুশীলন শুরু করেছে। এদিকে বাংলাদেশ দেশেটিতে সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না জানালেও সফরে যাওয়াকে ধরে নিয়েই এগুতে চাচ্ছে। এটির বেশ শক্ত প্রমাণ মিলেছে বিসিবি প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর কথায়।

তিনি জানিয়েছেন, করোনার কারণে এখনই অনুশীলন শুরু করা সম্ভব না হলেও ৫ সপ্তাহের প্রস্তুতি ক্যাম্প করায় চিন্তা করছে বিসিবি। যা জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে শুরু হতে পারে। অর্থাৎ, অনুশীলন শেষ করেই যেন শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে উড়াল দিতে পারে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

নান্নু বলেন, পরিস্থিতির উন্নতি হলে সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে অনুশীলন শুরু হবে। অনুশীলন চলবে মূলত দুই ভাগে। প্রথমত, ফিজিক্যাল ট্রেনিং; যা তিন সপ্তাহ ধরে চলবে। এরপর বাকি দুই সপ্তাহর স্কিল ট্রেনিং।

এদিকে বিসিবি এসব পরিকল্পনা নিয়ে এগুতে থাকলেও সবকিছু নির্ভর করছে বাংলাদেশ সরকারের ওপর। সরকারের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত না পেলে শেষ মুহূর্তেও স্থগিত হয়ে যেতে পারে শ্রীলঙ্কা সফর। কারণ, সবকিছুর ঊর্ধ্বে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে।

[sportsmail24.com এর ওয়েবসাইট এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও ব্রাউজ করে পড়তে পারবেন। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস থেকেও খেলাধুলার সকল নিউজ পড়তে পারবেন। ইনস্ট্রল করুন স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

যেকোন কন্ডিশনে যেকোন দলকে হারাতে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ

যেকোন কন্ডিশনে যেকোন দলকে হারাতে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ

টাইগারদের জন্য খুলছে স্টেডিয়ামে অনুশীলন সুবিধা

টাইগারদের জন্য খুলছে স্টেডিয়ামে অনুশীলন সুবিধা

নিজ দেশে দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশ নারী দলের কোচ

নিজ দেশে দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশ নারী দলের কোচ

স্টেডিয়ামে অনুশীলনের অনুমতি চেয়েছিলেন মুশফিক

স্টেডিয়ামে অনুশীলনের অনুমতি চেয়েছিলেন মুশফিক