বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ জেতার সাহস দিয়েছেন রাসেল ডোমিঙ্গো

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৯:০৬ পিএম, ২৪ মার্চ ২০২২
বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ জেতার সাহস দিয়েছেন রাসেল ডোমিঙ্গো

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো ম্যাচ জয়ের পর সিরিজও জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। ওয়ানডে ফরম্যাটে প্রথমবারের মতো এ ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের পর বিশ্বকাপ মঞ্চেও শিরোপা জয়ের সাহস দিয়েছেন কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। বলেছেন, ‌এ সিরিজ জয়ের পরও যদি তোমরা (বাংলাদেশ) বিশ্বাস করতে না পারো যে, বিশ্বকাপ জিততে পারবা না, তাহলে আর কোন কিছুই বিশ্বাস করার দরকার নেই।

নিজ দেশ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর ড্রেসিং রুমের সিঁড়িতে অধিনায়ক তামিম ইকবালকে জড়িয়ে ধরেন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। পাশে লিটন দাসকেও আলিঙ্গন করেন অনেকক্ষণ। হোটেলে ফেরার পর আনন্দে নেচে উঠেন তিনি। কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর এমন আনন্দ এমনি এমনি আসেনি। অনেক সমালোচনা সহ্য করেই টিকে থাকতে হয়েছে তাকে।

সেঞ্চুরিয়নে সিরিজ জয়ের একদিন পার হয়ে গেলেও আনন্দের রেশ এখনো রয়েছে। ওয়ানডে সিরিজ জেতার সুখ স্মৃতি নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) ডারবানে পৌঁছেছে বাংলাদেশ টেস্ট দল। সেখানে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

ডারবানে যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সিরিজ জয়ের বিষয়ে তামিম বলেন, “দেশ থেকে আসার সময় সিরিজ জিতবো -এমনটা আশা ছিল না। তবে একটা ম্যাচ জিততে পারি -এমনটা আশা ছিল। বাট কোচের অনেক বিশ্বাস ছিল যে, সিরিজটা আমরা জিতবো।”

টাইগারদের প্রধান কোচ দক্ষিণ আফ্রিকান রাসের ডোমিঙ্গোর নিজ দেশের কন্ডিশন এবং ক্রিকেট জ্ঞান বেশ ভালোভাবে রপ্ত করা। ফলে টাইগারদের নানা বিষয়ের তথ্য জানিয়ে দিয়েছিলেন খুব সহজেই। টাইগাররাও তা গ্রহণ করেছিল দ্রুত।

তামিম বলেন, “ম্যাচের আগেই সে (রাসেল ডোমিঙ্গো) আমার সাথে বিস্তারিত আলোচনা করেছে। অন্যান্য খেলোয়াড়দের মাঝেও সেভাবে বিশ্বাস তৈরি করতে পেরেছে। প্রথম ম্যাচ জয়ের পর বিশ্বাস এবং সাহস আরও বেড়ে যায়। আমাদের সবার বিশ্বাস ছিল যে, সিরিজ জয়ের জন্য এটা আমাদের দারুণ সুযোগ।”

টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‍“সিরিজ জয়ের পর রাসেল (রাসেল ডোমিঙ্গো) ড্রেসিং রুমে এসে একটা কথা বলেছে, ‘এ সিরিজ জয়ের পর তোমরা (বাংলাদেশ ক্রিকেট দল) যদি বিশ্বাস না করো যে, তোমরা বিশ্বকাপ জিততে পারবা, তাহলে আর কোনও কিছুই বিশ্বাস করবা না।’ এটা আমাদের জন্য বিশাল বড় একটি বার্তা।”

তামিম ইকবাল বলেন, “শেষ ম্যাচের আগে কোচ একটি কথাই বলছিল যে, ‘আমরা এখানে অনেকেই আছি, ১০-১২-১৫ বছর ধরে খেলছি। এ সিরিজটা যদি জিততে পারে তাহলে এটা আমাদের হবে সবচেয়ে বজ অর্জন।’ সো, এটা একটা মোটিভেশন ছিল সবার মধ্যে।”

বাংলাদেশের এমন ঐতিহাসিক সিরিজ জয় দলের প্রত্যেকে সমানভাবে দিতে চান অধিনায়ক তামিম ইকবাল। কোচিং স্টাফ থেকে শুরু করে থ্রোয়ার সবাইর অবদান রয়েছে।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, “আমার মনে হয়, কোচরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তাদের কাছে যে তথ্য ছিল তা তারা আমাদের সঙ্গে ভাগাভাগি করেছে। পাশাপাশি এটাও বলতে হবে যে, এর আগে যারা কাজ করেছে তাদেরও অবদান আছে। এটা দলীয় প্রচেষ্টার ফল। কোচিং স্টাফরাও এর অংশ। সবাই সবার কাজটা ঠিকঠাক করেছে দেখেই অর্জন। এই একটা সিরিজ যে, যেকোনো একজনকে পয়েন্ট আউট করা খুবই কঠিন, এটা ছিল পুরো টিম এফোর্ট।”

স্পোর্টসমেইল২৪/আরএস


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে দলের ‘একহাত নিলেন’ মার্ক বাউচার

বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে দলের ‘একহাত নিলেন’ মার্ক বাউচার

বাংলাদেশ দলকে ৩ কোটি টাকা পুরস্কার দেবে বিসিবি

বাংলাদেশ দলকে ৩ কোটি টাকা পুরস্কার দেবে বিসিবি

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়

দ্বিতীয়বারের মতো ফাইফারের দেখা পেলেন তাসকিন

দ্বিতীয়বারের মতো ফাইফারের দেখা পেলেন তাসকিন