প্রিমিয়ার লিগ শুরুর পরিকল্পনায় শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০১:০২ পিএম, ২২ জুন ২০২০
প্রিমিয়ার লিগ শুরুর পরিকল্পনায় শ্রীলঙ্কা

২০১২ সালে প্রথমবারের মতো প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করেছিল শ্রীলঙ্কা

করোনাভাইরাসের কারণে শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত করেছে ভারত। ঝুলে রয়েছে বাংলাদেশের লঙ্কা সফরও। তবে ভারত-বাংলাদেশকে বাদ রেখে নিজেদের মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শ্রীলঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ (এসএলপিএল) আয়োজনের পরিকল্পনা করছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড।

ক্রিকেট বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় শ্রীলঙ্কায় করোনাভাইরাসের প্রভাব কম। তবে প্রাণঘাতি এ ভাইরাসের মাঝে খেলতে নারাজ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ফলে প্রথমে রাজি হলেও লঙ্কার সফর স্থগিত করে বিসিসিআই। ভারত তাদের সফর স্থগিত করলেও এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানায়নি বাংলাদেশ। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের সফর বাদ ধরে রেখেই এগিয়ে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। 

নিজ দেশে ক্রিকেট ফেরাতে বদ্ধপরিকর শ্রীলঙ্কা। সে পরিকল্পনা মাথায় রেখেই ২০১২ সালের পর দ্বিতীয়বারের মতো শ্রীলঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করার পরিকল্পনা করছে লঙ্কান বোর্ড। বিভিন্ন কারণে ২০১২ সালের পর এসএলপিএল আয়োজন করতে না পারলেও করোনার এই সময়ে উইন্ডো ফাঁকা থাকায় নতুন পরিকল্পনা করছে তারা।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের এক কর্মকর্তা ক্রিকইনফোকে নিশ্চিত করেছেন যে, শুধু বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ ও এশিয়া কাপের জন্যই নয়, একই সাথে এসএলপিএল আয়োজনের জন্যও অনুমোদন দিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার।

তিনি জানান, বোর্ড দুই মাসের ব্যবধানে একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে চলছে। যার জন্য বোর্ডের বেশ আগ্রহ রয়েছে। মোট ৫টি দল নিয়ে এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা ভাবছে এসএলসি। যেখানে চলতি বছরের আগস্টের মাঝামাঝি শুরু হয়ে টানা তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলে সেপ্টেম্বরে শেষ হবে। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনও অফিসিয়ালি কোন ঘোষণা দেয়নি বোর্ড।

জানা গেছে, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলভা লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের সম্ভাবনা সম্পর্কে অন্যান্য বোর্ডকে চিঠি লিখেছেন এবং বিদেশি খেলোয়াড়দের সাথেও যোগাযোগ করা হয়েছে।

এর আগে অবশ্য লঙ্কান ক্রিকেটের সেক্রেটারি মোহন ডি সিলভা জানিয়েছিলেন, বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি স্বরুপ শ্রীলঙ্কা প্রিমিয়ার লিগটা মাঠে গড়ানো জরুরি।

সংবাদ মাধ্যমে তিনি বলেছিলেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিতে আমরা কয়েকজন আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় নিয়ে এসএলপিএল শুরু করতে চাইছি। যেহেতু এই সময়টায় কোনো আন্তর্জাতিক সফর হচ্ছে না। যদি আইসিসি অক্টোবর-নভেম্বরেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়, তবে এসএলপিএল আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ হবে।’

টুর্নামেন্ট শুরু হলেও কোন কোয়ারেন্টাইন নীতি রাখবে না শ্রীলঙ্কা সরকার। তবে খেলোয়াড় ও স্টাফদের দিতে হবে করোনা পরীক্ষা। বিদেশি খেলোয়াড়, স্টাফ ও সম্প্রচারকর্মীদের নিজ দেশে করোনা পরীক্ষা দিয়ে নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কায় আবর পরীক্ষা করাতে হবে। সেখানে নেগেটিভ ফল মিললেই টুর্নামেন্টের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার সুযোগ পাবেন ক্রিকেটাররা।

[sportsmail24.com এর ওয়েবসাইট এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও ব্রাউজ করে পড়তে পারবেন। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস থেকেও খেলাধুলার সকল নিউজ পড়তে পারবেন। ইনস্ট্রল করুন স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালের তদন্ত করবে শ্রীলঙ্কা সরকার

২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালের তদন্ত করবে শ্রীলঙ্কা সরকার

বিশ্বকাপের ‘ফিক্সিং’ নিয়ে আবারও মুখ খুললেন মাহেলা

বিশ্বকাপের ‘ফিক্সিং’ নিয়ে আবারও মুখ খুললেন মাহেলা

বিশ্বকাপ ফাইনালে ফিক্সিংয়ের সত্যতা চান মাহেলা-সাঙ্গাকারা

বিশ্বকাপ ফাইনালে ফিক্সিংয়ের সত্যতা চান মাহেলা-সাঙ্গাকারা

শ্রীলঙ্কার অনুশীলন ক্যাম্পে ২৪ ক্রিকেটার, নেই মালিঙ্গা

শ্রীলঙ্কার অনুশীলন ক্যাম্পে ২৪ ক্রিকেটার, নেই মালিঙ্গা