× Advertisement

আইসিসির চোখে সাকিবসহ বিশ্বকাপে সেরা ৯ তারকা

পার্থ প্রতীম রায় পার্থ প্রতীম রায় প্রকাশিত: ০৭:৪৫ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০২১
আইসিসির চোখে সাকিবসহ বিশ্বকাপে সেরা ৯ তারকা

ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম ও সবচেয়ে উত্তেজনাময় ফরম্যাট টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট বোদ্ধাদের অনেকেই এ ফরম্যাট নিয়ে সমালোচনা করলেও বর্তমান প্রজন্মের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় কুড়ি ওভারের খেলা। ২০০৫ সালে আবির্ভাব ঘটে চার-ছক্কার এ ক্ষুদ্র ক্রিকেট সংস্করণের। দ্রুতই ক্রিকেটারদের মাঝেও জনপ্রিয় হয়ে উঠে ফরম্যাটটি। ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সুবাদে বিশ্বজুড়ে এ সংস্করণের আরো পরিচিতি বাড়ে।

২০০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় বসে এই ক্ষুদ্রতম ফরম্যাটের প্রথম বিশ্ব আসর। সেবার ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে ট্রফি ঘরে তোলে ভারত। ২০০৯ ও ২০১০ সালে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে বসে আরো দুটি আসর। এরপর থেকে প্রতি দুই বছর পর পরই টুর্নামেন্টটি আয়োজন করে আসছিল আইসিসি। মাঝে ওয়ানডে বিশ্বকাপ ও করোনার বাধার পর অবশেষে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে আবার পর্দা উঠছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসরগুলো কিছু ক্রিকেটার স্বমহিমায় উজ্জ্বল হয়েছেন। নিজেদেরকে পরিণত করেছে বিশ্বআসরের সেরা পারফর্মার। তাদেরকে নিয়েই আজকের এ আয়োজন।

শহীদ আফ্রিদি (পাকিস্তান)
টি-টোয়েন্টি বিশ্বআসরে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন এ অলরাউন্ডার। বিশ্বকাপে ৩৪ ম্যাচ খেলে শিকার করেছেন ৩৯ উইকেট। শুধু বল নয়, ব্যাট হাতেও জ্বলে উঠেছিলেন এ বিশ্ব আসরে।

২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শিরোপা জয়ের পিছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন তিনি। এ সময়ে ব্যাট হাতে ৫৪৬ রান করেছেন তিনি।

সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ)
বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বিশ্বকাপের মঞ্চেও স্বমহিমায় উজ্জ্বল তিনি। বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপে ২৫ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। এ সময় বল হাতে ৩০ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে করেছেন ৫৬৭ রান।

দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরে বল হাতে ৩০ উইকেটের পাশাপাশি ৫০০ এর অধিক রান করেছেন। এবারও বাংলাদেশের অন্যতম ভরসার নাম হয়ে থাকবেন সাকিব।

স্যামুয়েল বদ্রি (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

sportsmail24

জাতীয় দলে নিয়মিত না হলেও যখনই সুযোগ পেয়েছেন নিজের সেরাটা দিয়ে পারফর্ম করেছেন স্যামুয়েল বদ্রি। বিশ্বকাপের মঞ্চেও দারুণ সফল হয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপের ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খুব বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি বদ্রি। ২০১২ এবং ২০১৬ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে শিরোপা জেতানোর পথে বল হাতে নিয়মিত পারফর্ম করেছেন। বিশ্বকাপে মোট ১৫ ম্যাচ খেলে ২৪ উইকেট শিকার করেছেন।

এবি ডি ভিলিয়ার্স (শ্রীলঙ্কা)

sportsmail24

বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় পাঁচ নম্বরে অবস্থান করছেন ডি ভিলিয়ার্স। বিশ্ব আসরে তার থেকে বেশি স্ট্রাইকরেটে ব্যাটিং করেছেন শুধুমাত্র ক্যারিবিয়ান ক্রিস গেইল।

বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৩০ ম্যাচ খেলেছেন ভিলিয়ার্স। এ সময়ে করেছেন ৭১৭ রান। শুধু ব্যাটিং নয়, ফিল্ডিংয়েও বেশ নজর কাড়া ছিলেন তিনি। ৩০ ম্যাচে সমান সংখ্যক ক্যাচ ধরেছেন তিনি।

তিলকারত্নে দিলশান (শ্রীলঙ্কা)

sportsmail24

টি-টোয়েন্টি সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড লঙ্কান ব্যাটার দিলশানের দখলে। বিশ্বকাপে তিনি খেলেছেন ৩৫ ম্যাচ। বিশ্বকাপের ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রাহকও তিনি।

এ লঙ্কান ওপেনার বিশ্বকাপে ৮৯৭ রান করেছেন। এছাড়া ২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসরে ৩১৭ রান করে ওই আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েছিলেন তিনি। তবে ওই বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে শিরোপা হাত ছাড়া করে শ্রীলঙ্কা। অবশ্য ২০১৪ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শিরোপার স্বাদ পান।

ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
ইউনিভার্স বস নামে খ্যাত ক্যারিবিয়ান তারকা ক্রিস গেইল। বিশ্বের প্রায় সব টি-টোয়েন্টি ব্যাটিং রেকর্ডই তার দখলে। বিশ্বকাপের মঞ্চেও নিজেকে আলাদা করে চিনিয়েছেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ক্রিস গেইল। বিশ্ব আসরে ২৮ ম্যাচে ৯২০ রান করেছেন তিনি। এবারের আসরে ৮০ রান করতে পারলেও বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে এক হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করবেন। এর আগে এ রেকর্ডের গড়েছেন লঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনে।

মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা)

sportsmail24

শ্রীলঙ্কার এ কিংবদন্তি ব্যাটার অন্যসব ফরম্যাটের মতো টি-টোয়েন্টিতেও বেশ সফল ছিলেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশ রান তিনিই করেছেন। বিশ্বকাপে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ৩১ ম্যাচ খেলে করেছেন ১০১৬ রান। এছাড়াও এ সংস্করণে বিশ্বকাপে নিজের দলকেও নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

২০১০ ইংল্যান্ড টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে থাকলেও দলকে শিরোপা জেতাতে পারেননি। তবে এ আক্ষেপ ঘুচেছে ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।

বিরাট কোহলি (ভারত)

sportsmail24

বর্তমানের সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। বর্তমান সময়ে বিশ্বের সকল ব্যাটিং রেকর্ডই প্রায় তার দখলে। ব্যাট হাতে প্রতিনিয়তই রানের ফুল ঝুড়ি ফুটিয়ে যাচ্ছেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও একই ধারা বজায় রেখেছিলেন তিনি।

এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে ১৬ ম্যাচ খেলে করেছেন ৭৭৭ রান। ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেরা ক্রিকেটারও ছিলেন তিনি। এবারও নিজের সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখবেন এটাই চাওয়া।

লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা)

sportsmail24

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন লাসিথ মালিঙ্গা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী তিনি। বিশ্বকাপে ৩০ ম্যাচ খেলে শিকার করেছেন ৩৮ উইকেট।

বিপদের সময়ে দলকে ব্রেক থ্রু এনে দেওয়া কিংবা প্রতিপক্ষকে শুরু থেকেই চেপে ধরার ক্ষমতা ছিল তার। দলকে নিয়মিতই সাফল্য এনে দেওয়া মালিঙ্গা নিজের সেরা বিশ্বকাপ কাটিয়েছিলেন ২০১০ সালে। তবে সেবার বিশ্বকাপ জিততে পারেনি তার দল শ্রীলঙ্কা। শেষ পর্যন্ত ২০১৪ বিশ্বকাপ জিতে ঘোচে লঙ্কানদের আক্ষেপ।

স্পোর্টসমেইল২৪/পিপিআর

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

টি-টোয়েন্টির ছয় বিশ্বকাপে দুরন্ত সব পারফর্মেন্স

টি-টোয়েন্টির ছয় বিশ্বকাপে দুরন্ত সব পারফর্মেন্স

স্কোয়াডে থাকলেও বিশ্বকাপে হার্দিক পান্ডিয়াকে নিয়ে শঙ্কায় ভারত

স্কোয়াডে থাকলেও বিশ্বকাপে হার্দিক পান্ডিয়াকে নিয়ে শঙ্কায় ভারত

বিশ্বকাপ খেলতে আফগানিস্তানের কোন বাধা নেই : আইসিসি

বিশ্বকাপ খেলতে আফগানিস্তানের কোন বাধা নেই : আইসিসি

বিশ্বকাপে সেমি-ফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ : সুজন

বিশ্বকাপে সেমি-ফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ : সুজন