নারী ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনে ফেবারিট অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৬:৪৪ পিএম, ২৪ জুন ২০২০
নারী ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনে ফেবারিট অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড

২০২৩ নারী ফিফা বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড যৌথভাবে বিডে অংশ নিয়েছে। তাদের বিপক্ষে বিডে একমাত্র দেশ হিসেবে রয়েছে কলম্বিয়া। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) ফিফা কাউন্সিলে এ ব্যপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

ধারণা করা হচ্ছে, ২০২২ পুরুষ বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ব পেতে অস্ট্রেলিয়া যেভাবে কোটি কোটি ডলার ব্যয় করেও সফল হতে পারেনি, এবার নারী ফুটবলের ক্ষেত্রে তা আর হবে না। এছাড়া বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ২০১১ নারী বিশ্বকাপ বিজয়ী জাপান এবং ব্রাজিল বিড থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেওয়ায় অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকেই ফেবারিট হিসেবে মানা হচ্ছে।

গত বছর ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত নারী বিশ্বকাপ ছিল ফিফার ইতিহাসে নারীদের কোন টুর্নামেন্ট হিসেবে অন্যতম সফল একটি আয়োজন। বিশ্বজুড়ে প্রায় ১.১২ বিলিয়ন মানুষ নারীদের এই বিশ্বকাপ উপভোগ করেছে। পরবর্তী বিশ্বকাপে এই প্রথমবারের মতো ২৪ দেশের থেকে সংখ্যাটি বাড়িয়ে ৩২ করা হয়। যে কারণে আয়োজকদের ওপর চাপটা অন্য পর্যায়ে চলে গেছে।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড দুই দেশেরই বড় ইভেন্ট আয়োজনের অভিজ্ঞতা রয়েছে। ফিফার পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট অনুযায়ী তাদের বিডকে বেশ শক্তিশালী হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে।

অস্ট্রেলিয়া ফুটবল ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ক্রিস নিকো বলেছেন, ‘যখন কেউ আমাদের বিডের দিকে তাকাবে তখন এর প্রতি সর্বোচ্চ ভোট পড়তে বাধ্য। অবকাঠামো, সুযোগ সুবিধা, সবদিক থেকে ফিফার কাছে এর গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। নারীদের ক্ষেত্রে একটি বিষয় সত্যিকার অর্থেই বলা যায়, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড ভ্রমণের জন্যও দারুণ দুটি জায়গা। সে কারণেই পুরো প্যাকেজ বিবেচনায় এটি একটি পরিপূর্ণ বিড।’

২০১০ সালে মাত্র এক ভোটের জন্য কাতারের কাছে পুরুষ বিশ্বকাপের স্বত্ব হারিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। যদিও ওই বিড নিয়ে পরবর্তীতে যথেষ্ট সমালোচনা হয়েছে। ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা হিসেবে ফিফার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। তবে কার্যত অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দারুণভাবে ভেঙে পড়েছিল।

ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ও জাসিন্ডা আরডার্ন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, এ আয়োজন সর্বোচ্চ সংখ্যক দর্শক আকর্ষণের রেকর্ড গড়বে। ফিফা কাউন্সিলের কাছে পাঠানো যৌথ এক চিঠিতে তারা উল্লেখ করেছেন, ‘ফুটবল এমন একটি খেলা যা আমাদের সবাইকে এক সুতায় নিয়ে আসবে। এর মাধ্যমে আমরা সামাজিকভাবে একে অন্যের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে সব উদযাপন করতে পারব।’

দুই দেশ ১২টি শহরে এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা করেছে। অকল্যান্ডে উদ্বোধনী ম্যাচ হলেও ফাইনাল হবে সিডনিতে। টিকিটের দামও মাত্র ৫ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রায় দেড় মিলিয়ন সমর্থকের উপস্থিতি আশা করছে সংশ্লিষ্টরা।

[sportsmail24.com এর ওয়েবসাইট এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও ব্রাউজ করে পড়তে পারবেন। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস থেকেও খেলাধুলার সকল নিউজ পড়তে পারবেন। ইনস্ট্রল করুন স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও নারী বিশ্বকাপ নিয়ে প্রস্তুত অস্ট্রেলিয়া

অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও নারী বিশ্বকাপ নিয়ে প্রস্তুত অস্ট্রেলিয়া

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব স্থগিত

নারী ক্রিকেট বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব স্থগিত

ট্রান্সফার উইন্ডো খোলার অনুমতি দিল ফিফা

ট্রান্সফার উইন্ডো খোলার অনুমতি দিল ফিফা

কাতার বিশ্বকাপের তৃতীয় স্টেডিয়াম প্রস্তুত

কাতার বিশ্বকাপের তৃতীয় স্টেডিয়াম প্রস্তুত