সুপার লিগ ক্যালেঙ্কারি : চেলসির দুঃখ প্রকাশ

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০২১
সুপার লিগ ক্যালেঙ্কারি : চেলসির দুঃখ প্রকাশ

বিতর্কিত ইউরোপীয়ান সুপার লিগে খেলতে রাজি হওয়ায় সমর্থকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে ইংলিশ ক্লাব চেলসি। একই সঙ্গে তারা নানা গোপনীয়তা ও চাপের মুখে ইউরোপীয়ান সুপার লিগে খেলতে রাজি হয়েছিল বলেও উল্লেখ করেছে।

ইংল্যান্ড, স্পেন ও ইতালির ১২টি দল নিয়ে ইউরোপীয়ান আসর আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। তবে বেশিরভাগ ক্লাবের সমর্থকই বিতর্কিত এ আসরের বিরোধীতা করেছে।

প্রস্তাবিত ইউরোপীয়ান সুপার লিগ ঘোষণার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই বিশ্ব ফুটবলের তোপের মুখে পড়ে পুরো পরিকল্পনাই ভেস্তে যায়। এদিকে, ইংলিশ আরেক ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পারের সমর্থকরাও ক্ষুব্ধ হয়ে ক্লাব বোর্ডের দ্রুত পদত্যাগ দাবি করেছে।

ইউরোপীয়ান ও বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থার নিষেধাজ্ঞার হুমকির সাথে ক্লাব সমর্থকদের বিরোধীতায় শেষ পর্যন্ত ইউরোপীয়ান সুপার লিগ কর্তৃপক্ষ পুরো পরিকল্পনা নতুন করে সাজানোর ঘোষণা দিয়েছে। ইংলিশ ক্লাবগুলোকে বাদ দিয়ে ভবিষ্যতে শুধুমাত্র স্পেন ও ইতালির ক্লাবগুলোকে নিয়ে নতুন পরিকল্পনা সাজানোর ইঙ্গিতও দিয়েছে তারা।

এদিকে, এক বিবৃতিতে চেলসি জানিয়েছে, ‘একটি ক্লাব হিসেবে আমরা সমর্থক ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের সাথে নিয়মিত ও উন্মুক্ত আলোচনার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তবে এবার আমরা নানা গোপনীয়তা ও চাপের মুখে সেটা করতে পারিনি বলে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

ফ্রান্স ও জার্মানী সুপার লিগে খেলতে শুরু থেকেই অস্বীকৃতি জানিয়েছিল। তবে চেলসিসহ ৬টি শীর্ষ সারির ইংলিশ ক্লাব লিগটিতে খেলার ঘোষণা দেয়। যদিও শেষ পর্যন্ত এখন আর লিগটি মাঠে গড়াচ্ছে না।

স্পোর্টসমেইল২৪/আরএস

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ফুটবল ‘বাঁচাতেই’ ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

ফুটবল ‘বাঁচাতেই’ ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

হুমকিকে উপেক্ষা করেই চালু হচ্ছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

হুমকিকে উপেক্ষা করেই চালু হচ্ছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অর্থায়ন করছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংক

ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অর্থায়ন করছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংক

ইউরোপিয়ান সুপার লিগের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে ফিফা

ইউরোপিয়ান সুপার লিগের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে ফিফা