‘বিশ্বকাপে পাকিস্তানের চেয়ে বেশি চাপে থাকবে ভারত’

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৯:৩৮ পিএম, ০৪ আগস্ট ২০২৩
‘বিশ্বকাপে পাকিস্তানের চেয়ে বেশি চাপে থাকবে ভারত’

ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের চেয়ে ভারত বেশি চাপে থাকবে বলে মনে করেন পাকদের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। নিজেদের মাঠে খেলার সুবিধার পেলেও দীর্ঘদিন আইসিসির ট্রফি জিততে না পারার কারণেই ভারতের উপর চাপ বেশি থাকবে বলে মনে করেন আকরাম। তার মতে, ঘরের মাঠে চাপে থাকবে ভারত, নির্ভার হয়েই খেলবে পাকিস্তান।

২০১১ সালে ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। এরপর আর ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিততে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। ২০১৫ ও ২০১৯ সালে পরের দুই বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেয় ভারত।

চলতি বছরের অক্টোবরে ভারতের মাটিতে শুরু হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর। ফলে আবারও ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেল ভারত। তৃতীয়বারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন ভারতের চোখে। তবে ভারতের জন্য কাজটি সহজ হবে না বলে মনে করেন আকরাম।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমকে আকরাম বলেন, “অবশ্যই, ভারতের মোহাম্মদ সামি ও জসপ্রিত বুমরাহর মতো বোলার আছে। সামি দারুণ ও বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং করেন। বিশ্বকাপের আগে পুরোপুরি ফিট হতে হবে বুমরাহকে। আমি জানি না তার ফিটনেসের কী অবস্থায়। সে যদি ভালো অবস্থায় থাকে তাহলে বড় পার্থক্য তৈরি হবে।”

তিনি বলেন, “এছাড়াও ভালো স্পিনার এবং অলরাউন্ডার রয়েছে ভারতের। দেখা যাক, জাদেজা-অশ্বিনের মধ্যে কে খেলে। সত্যিই ভারতের কিছু ভালো খেলোয়াড় উঠে এসেছে। কিন্তু ঘরের মাঠে খেলার কিছু অসুবিধাও রয়েছে। ২০১১ সালে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। তবে নিজেদের মাঠে খেলার বাড়তি চাপ সব সময়ই থাকে। এটা কিন্তু পাকিস্তানের ক্ষেত্রেও একইরকম। আয়োজক হলে চাপ থাকতো।”

বিশ্বকাপ সূচি ঘোষণার আগে ভারতের বিপক্ষে আহমেদাবাদে খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। শেষ পর্যন্ত সূচিতে আহমেদাবাদেই ১৫ অক্টোবর ভারত-পাকিস্তান লড়াই চূড়ান্ত করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। ভেন্যু নিয়ে পিসিবির ওমন আচরণে হতাশ আকরাম।

তিনি বলেন, “আমি আগেই বলেছি, আমাকে যদি বলা হয় ওই তারিখে ওই ভেন্যুতে খেলতে, আমি খেলবো। সেটা আহমেদাবাদ, চেন্নাই, কলকাতা বা মুম্বাই, যেখানেই হোক না কেন। তাই খেলতে হবে এবং এটি নিয়ে চিন্তার কোন কারণ নেই।”

সর্বশেষ ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেছিল ভারত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ওই ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতেছিল টিম ইন্ডিয়া।


শেয়ার করুন :