শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ-ভারত

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ-ভারত

এশিয়া কাপের গত তিন আসরের বাংলাদেশ ফাইনাল খেললেও শিরোপা ছুতে পারেনি। গত আসরের ন্যায় এবারও ফাইনালে বাংলাদেশের মুখোমুখি ভারত। টি-টোয়েন্টি ফর্মেটে গত আসরের ফাইনালে ভারতের কাছে ৮ উইকেটে হেরে যায় বাংলাদেশ। দু’বছর পর ও টানা দ্বিতীয়বারের মত আবারও এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ। এবারও প্রতিপক্ষ ভারত।

তবে এবার আর শিরোপা জয়ের সুযোগ হাতছাড়া করতে চায় না মাশরাফির দল। প্রতিশোধের আগুনে ভারতকে পুড়িয়ে এশিয়া শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পড়তে চায় বাংলাদেশ। দুবাইয়ে আজ বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

শিরোপা জিততে না পারার বন্ধ্যাত্ব ঘোচানোর মিশন নিয়ে এবারের এশিয়া কাপে খেলতে নামে বাংলাদেশ। ২০১২ ও ২০১৬ সালে এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠে টাইগাররা। কিন্তু দু’বারই শিরোপা বঞ্চিত হয় তারা। প্রথমবার পাকিস্তানের কাছে মাত্র ২ রানে এবং পরের বার টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের আসরে ভারতের কাছে ৮ উইকেটে হারে টাইগাররা।

গত আসরে শিরোপা জিততে না পারার আক্ষেপ এখনো বাংলাদেশের স্মৃতি পটে বিদ্যমান। সেই স্মৃতি ভুলে যাওয়ার দারুন এক সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। চিত্রটা একেবারে ২০১৬ সালের মত। এশিয়া কাপের ফাইনাল-বাংলাদেশ বনাম ভারত। ঐবার ছিল টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট, এবার ওয়ানডে ফরম্যাট।

এবারের আসরে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের উজ্জীবিত পারফরমেন্স ভালো আভাসই দিচ্ছে। তিনবারের চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে এবারের এশিয়া কাপে যাত্রা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। পরের দু’ম্যাচে হোচট খেলেও থমকে যায়নি মাশরাফির দল। সুপার ফোরের শেষ দু’ম্যাচে প্রশংসা কুড়ানোর মত জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

তবে দলে থেকে ইতোমধ্যে বাদ পড়েছেন টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাকিল আল হাসান। ফলে এবারও যে এশিয়া শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পড়তে বাংলাদেশের খুব বেগ পোহাতে হবে তা সহজেই অনমান করা যায়। তবুও আশাবাদি। কারণ দলের নেতৃত্বে রয়েছেন মাশরাফি, এছাড়া ব্যাটে বলে অন্যরাও যে কম নন। রয়েছেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান।

অন্যদিকে পুরো আসরে এখন পর্যন্ত ভারতের পারফরমেন্স ভালো। যেটা ভালো জানেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও। তাই তো পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়ের পরই ভারতকে নিয়ে চিন্তা শুরু করে দিয়েছেন ম্যাশ। ভারতকে শক্তিশালী দল বলে অ্যাখায়িত করে মাশরাফি বলেন, ‘আমরা জানি ভারত অনেক বেশি শক্তিশালী দল। আমাদের সাকিব এবং তামিম নেই। তারপরও আমি আশা করবো ফাইনাল ম্যাচে ছেলেরা তাদের সেরা পারফরমেন্সই প্রদর্শন করবে।’

বাংলাদেশ দল
মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিথুন, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, আবু হায়দার রনি, নাজমুল হোসেন শান্ত ও মোমিনুল হক।

ভারত দল
রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, আম্বাতি রাইদু, মনীষ পান্ডিয়া, কেদার যাদব, মহেন্দ্র সিং ধোনি, দিনেশ কার্তিক, কুলদীপ যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, যুজবেন্দ্রা চাহাল, ভুবনেশ্বর কুমার, জসপ্রিত বুমরাহ, খলিল আহমেদ, দীপক চাহার ও সিদ্বার্থ কাউল।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ফাইনালে আশাবাদি মাশরাফি

ফাইনালে আশাবাদি মাশরাফি

নিজেকে এত সস্তা ভাবি না : মাশরাফি

নিজেকে এত সস্তা ভাবি না : মাশরাফি

বাংলাদেশ-ভারত ওয়ানডে পরিসংখ্যান

বাংলাদেশ-ভারত ওয়ানডে পরিসংখ্যান

এ বিজয় আমাদের : শেখ হাসিনা

এ বিজয় আমাদের : শেখ হাসিনা