মঈন খানের ছেলে পাকিস্তান দলে, সমালোচনার ঝড়

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৫:১৭ পিএম, ০৫ জুন ২০২১
মঈন খানের ছেলে পাকিস্তান দলে, সমালোচনার ঝড়

আসন্ন ইংল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্য পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি দল সুযোগ পেয়েছেন কিংবদন্তি উইকেটরক্ষক মঈন খানের ছেলে আজম খান। এ নিয়ে পাকিস্তানের ক্রীড়াঙ্গনে চলেছে সমালোচনার ঝড়।

পাকিস্তান ক্রিকেটে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ নতুন কিছু নয়। কিছুদিন পর পরই শোনা যায় এ অভিযোগ। মঈন খানের ক্ষমতার জোরেই কি জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন ছেলে আজম খান। পাকিস্তানে এ নিয়ে চলছে বেশ কানাঘুষা।

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) দল কোয়েটা গ্লাডিয়েটরসের কোচ মঈন খান। সে দলের হয়ে নিয়মিতই মাঠে নামেন ২২ বছর বয়সী উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান আজম খান।

পাকিস্তানের ক্রিকেট সমর্থকদে মনে প্রশ্ন উঠেছে আজম খানের ফিটনেস নিয়েও। কারণ তার ওজন ১০০ কেজির বেশি। সমর্থকরা মনে করেন আজমকে জাতীয় দলে ভিড়াতে বাবা মঈন খান নির্বাচকদের প্রভাবিত করেছেন।

পাকিস্তানের সমর্থকদের মধ্যে এ নিয়ে বেশ সন্দেহ আছে। আজম খানের ঘরোয়া ক্রিকেটে রেকর্ড খুব আহামরি কিছু নয়। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে খেলেছেন মাত্র এক ম্যাচ। লিস্ট এ ম্যাচ খেলেছেন ১৫ টি এবং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে খেলেছেন মাত্র ৩৬ ম্যাচ। ছোট্ট এ ক্যারিয়ারের বলার মত সাফল্য নেই তার।

একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে কোনো ফরম্যাটেই এখনও সেঞ্চুরির দেখা পাননি আজম খান। তবে রয়েছে পাঁচটি হাফ সেঞ্চুরি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১৫০ এর স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করেন তিনি। পাকিস্তান দলের নির্বাচকরা জানিয়েছেন দেড়শ স্ট্রাইক রেটের কারণে তাকে দলে নেওয়া হয়েছে। মিডল অর্ডারে তার এ ব্যাটিং বেশ কার্যকর হবে বলে মনে করেন নির্বাচকরা।

স্পোর্টসমেইল২৪/পিপিআর

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ইপিএলের সেরা একাদশে সিটির আধিপত্য

ইপিএলের সেরা একাদশে সিটির আধিপত্য

দীর্ঘ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরলেন শাহাদাত

দীর্ঘ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরলেন শাহাদাত

আরব আমিরাতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: পিসিবি সভাপতি

আরব আমিরাতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: পিসিবি সভাপতি

মাঠে গড়ানোর আগেই স্থগিত লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ

মাঠে গড়ানোর আগেই স্থগিত লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ