অনূর্ধ্ব-১৪ প্রমিলা ফুটবল দলে ডাক পেলেন সাতক্ষীরার চুমকি

জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি প্রকাশিত: ১০:১০ পিএম, ২১ মার্চ ২০২০
অনূর্ধ্ব-১৪ প্রমিলা ফুটবল দলে ডাক পেলেন সাতক্ষীরার চুমকি

সাতক্ষীরা কলারোয়ার কিশোরী সুমাইয়া আক্তার চুমকি বাংলাদেশ জাতীয় প্রমিলা ফুটবল দলে (অনূর্ধ্ব-১৪) ডাক পেয়েছেন। কলারোয়া উপজেলার কয়লা গ্রামের আব্দুল মাজেদ গাজীর মেয়ে চুমকি জেলা প্রমিলা কিশোরী ফুটবল দলের অন্যতম স্ট্রাইকার।

চলতি বছর দেশের একমাত্র সরকারি জাতীয় ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিকেএসপিতে চান্স পাওয়া চুমকি জেলার কলারোয়ার কয়লা হাইস্কুল থেকে ৮ম শ্রেণি শেষ করেছেন।

সুমাইয়া আক্তার চুমকি সরকারিভাবে চলতি বছরের ১৫-২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিকেএসপিতে ফুটবল ট্রেনিং করেন। এর আগে ইউনিসেফের অর্থায়নে ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) উদ্যোগে ২০১৯ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বরে যশোরে দুই মাসের ফুটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্প অংশ নেন তিনি। এছাড়া বিভিন্ন পুরস্কারও লাভ করেছেন তিনি।

চুমকির বাবা স্থানীয় ক্ষুদ্র কুঠিরশিল্প ব্যবসায়ী। সংসারে অভাব-অনাটন থাকলেও মেয়ের ফুটবল খেলার প্রতিভাকে উৎসাহ যোগাতে ভুল করেননি চুমকির বাবা-মা। চুমকির ছোট ভাই ৫ম শ্রেণিতে পড়ে। সাংসারিক ও পারিপার্শ্বিক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে চুমকি চলেছে সম্ভাবনার পথে।

এ বিষয়ে চুমকি জানান, ছোটবেলা থেকেই ফুটবল খেলার প্রতি আগ্রহ ছিল। সেই আকর্ষণ থেকেই সকল বাধা বিপত্তি পেরিয়ে সঙ্গী করেছেন ফুটবলকে। সর্বপ্রথম কয়লা প্রাইমারি স্কুলে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় আন্তঃউপজেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে কলারোয়ার মাঠে তার দল জয়ী হয়।

এরপর সাতক্ষীরা জেলা পর্যায়ে জয়ী হয়ে খুলনাতে বিভাগীয় পর্যায়ে অংশ নেন তিনি। প্রতিটি ম্যাচে উজ্জ্বল ও নৈপুণ্য খেলোয়াড়ী দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন চুমকি। মূলত ওই টুর্নামেন্টের পর আর ফুটবল খেলা ছাড়েনি চুমকি। নিজের অনুশীলন, সীমাহীন ধৈর্য আর পরিবারসহ কয়েকজন শুভাকাঙ্ক্ষির অনুপ্রেরণায় মেয়ে হয়েও ফুটবল খেলা ধরে রেখেছেন বলে জানান তিনি।

স্পোর্টসমেইল২৪.কমকে চুমকি বলেন, ‘কোচিং গুরু সাতক্ষীরার আরিফুজ্জামান প্রিন্স ও কলারোয়া ফুটবল একাডেমির সায়েদ আলি বুট ও অন্যান্য ফুটবল খেলার সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করেন। কলারোয়া ফুটবল একাডেমির তত্ত্বাবধায়নে ছেলেদের সাথেই প্রতিদিন বিকেলে ফুটবল খেলা করি। ছেলে খেলোয়াড়রাও আমাকে সহযোগিতা করেন।’

কলারোয়া ফ্রেন্ডস স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রীড়া সম্পাদক রেজাউল করিম লাভলু স্পোর্টসমেইল২৪.কমকে বলেন, ‘চুমকির ফুটবল খেলা দেখলে বোঝা যায় ওর পায়ে জাদু আছে। সরকারি ও স্থানীয়দের সার্বিক সহযোগিতা পেলে চুমকি একদিন দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে।’

সাতক্ষীরা জেলা ফুটবল রেফারি অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরী সদস্য ও কলারোয়ার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মিয়া ফারুক হোসেন স্বপন স্পোর্টসমেইল২৪.কমকে বলেন, ‘চুমকির পায়ের নৈপুণ্য নিশ্চিত প্রতিভার স্বাক্ষর রাখে। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে জাতীয় পর্যায়ে পৌঁছানো চুমকির জন্য দোয়া কামনা করছি।’

এস এম হাবিবুল/সাতক্ষীরা


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ডিমলায় চলছে মাসব্যাপী ভলিবল ট্রেনিং

ডিমলায় চলছে মাসব্যাপী ভলিবল ট্রেনিং

সাতক্ষীরায় সাতজন অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলার নির্বাচিত

সাতক্ষীরায় সাতজন অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলার নির্বাচিত

রাষ্ট্রপতির এলাকায় নির্মিত হবে তিনটি স্টেডিয়াম

রাষ্ট্রপতির এলাকায় নির্মিত হবে তিনটি স্টেডিয়াম

সেপ্টেম্বরে ফুটবল বিশ্বকাপযাত্রা শুরু করতে চায় কনমেবল

সেপ্টেম্বরে ফুটবল বিশ্বকাপযাত্রা শুরু করতে চায় কনমেবল