দুর্দান্ত বাবর-হায়দার, টি-টোয়েন্টি সিরিজও পাকিস্তানের

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৭:৪৭ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০২০
দুর্দান্ত বাবর-হায়দার, টি-টোয়েন্টি সিরিজও পাকিস্তানের

সফররত জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের পর এবার টি-টোয়েন্টি সিরিজও নিজেদের করে নিল স্বাগতিক পাকিস্তান। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচের পর দ্বিতীয় ম্যাচেও জয় তুলে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করেছেন বাবর আজম-হায়দার আলীরা।

রোববার (৮ নভেম্বর) টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রানের সংগ্রহ গড়ে জিম্বাবুয়ে। জবাবে ব্যাট হাতে অধিনায়ক বাবর আজম ও হায়দর আলীর দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ১৫.১ ওভারেই ২ উইকেট হারিয়ে ৮ উইকেটে জয় তুলে নিয়েছে পকিস্তান।

ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৫ রানেই উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। ৬ বল খেলে মাত্র ৩ রান নিয়ে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার টেইলর। এরপর দলীয় ৩০ রানে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক চামু চিভাভা। তিনি করেন ৯ বলে ১৫ রান। শন উইলিয়ামসও ব্যাট হাতে ব্যর্থতার পরিচয় দেন। ১০ বলে ১৩ রান করেন তিনি।

৩৮ রানে তিন উইকেট হারানো পর দলের হাল ধরেন ওয়েসলি মাধেভেরে। তবে তিনিও বেশি দূর যেতে পারেননি, ২২ বল মোকাবেলা করে ২৪ রানে তিনিও বিদায় নেন। মাধেভেরে আউট হওয়ার এক বল আগে ১০ বলে ৭ রান করা সিকান্দর রাজা সাজঘরে ফেরেন।

পাকিস্তানি বোলার উসমান কাদিরের এক ওভারে দুই উইকেট হারানো পর দলের রানের চাকা সচল রাখেন রায়ান বুড়। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে ২২ বলে ৩২ রান করেন তিনি। যা জিম্বাবুয়ে ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান।

এছাড়া ব্যাট হাতে এল্টন চিগুম্বুরা ১৯ বরে ১৮, ডোনাল্ড তিরিপানো ১৭ বলে ১৫ এবং টেন্ডাই চিসোরো ৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রানের ইনিংস গড়ে জিম্বাবুয়ে। অন্যদিকে বল হাতে পাকিস্তানের হারিস রউফ ও উসমান কাদির ৩টি করে উইকেট শিকার করেন। বাকি উইকেটটি নেন ফাহিম আসরাফ।

১৩৫ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে পাকিস্তানও শুরুতে উইকেট হারায়। দলীয় ১০ রানে সাজঘরে ফিরেন ১১ বলে ৫ রান করা ফখর জামান। তবে অপর ওপেনার ও অধিনায়ক বাবর আজম ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন। ২৮ বলে ৫১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তার এ ইনিংসে ৮টি চারের সাথে ১টি ছক্কার মার রয়েছে।

দলীয় ১১০ রানে বাবর আজম ফিরে গেলে দ্বিতীয় উইকেট হারায় পাকিস্তান। এরপর খুশদিল শাহকে সঙ্গে নিয়ে সহজেই জয় তুলে নেন হায়দার আলী। হায়দার আলী অপরাজিত ৬৬ এবং খুশদিল শাহ ১১ রান করেন। হায়দার আলীর ইনিংসে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার মার ছিল। ম্যাচ সেরা হয়েছে অধিনায়ক বাবব আজম।

এদিকে এ জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজের দুটিতে জয় তুলে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ নিশ্চিত কররো স্বাগতিকরা। এর আগে সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাবর আজমের ৮২ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে ৪ উইকেটে জয় পেয়েছিল পাকিস্তান।

[sportsmail24.com এর ওয়েবসাইট এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও ব্রাউজ করে পড়তে পারবেন। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস থেকেও খেলাধুলার সকল নিউজ পড়তে পারবেন। ইনস্ট্রল করুন স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেন চিগুম্বুরা

অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেন চিগুম্বুরা

মেজাজ হারিয়ে জরিমানার কবলে সরফরাজ

মেজাজ হারিয়ে জরিমানার কবলে সরফরাজ

দুর্দান্ত বাবরে টি-টোয়েন্টিতেও পাকিস্তানের শুভ সূচনা

দুর্দান্ত বাবরে টি-টোয়েন্টিতেও পাকিস্তানের শুভ সূচনা

এখনো টেস্ট খেলার স্বপ্ন দেখেন উড

এখনো টেস্ট খেলার স্বপ্ন দেখেন উড