কৃতিত্ব পুরো দলের

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০১৮
কৃতিত্ব পুরো দলের

ছবি : ক্রিকইনফো

সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিলেটে প্রথম টেস্টে সফরকারীদের কাছে বড় ব্যবধানে পরাজিত হওয়ার পর দ্বিতীয় ও শেষে টেস্ট জিতে সিরিজ ড্র করছে টাইগাররা। সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে বড় জয় পাওয়ার জন্য পুরো দলকে কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশের দায়িত্ব পাওয়া অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

প্রথম ইনিংসে মুশফিকর রহিমের অপরাজিত ২১৯ এবং মোমনিুল হকের ১৬১ রানের সুবাদে ৭ উইকেটে ৫২২ রানে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। জবাবে ৩০৪ রানে গুটিয়ে গেলে ফলোঅনে পড়ে জিম্বাবুয়ে। তবে জিম্বাবুয়েকে ফলোঅনে না ফেলে নিজেরা ব্যাটিং নেয়ায় অনেকেই সমালোচনায় মুখর ছিলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। তবে পঞ্চম দিন দুপুরে বড় ব্যবধানে জয়ী হওয়ায় সমর্থকদের পাশাপাশি স্বস্তিতে খেলোয়াড়রাও।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, এ ম্যাচ জয়ে তার অবস্থা স্বস্তি ও আনন্দের মাঝামাঝি জায়গায়। ম্যাচ জয়েরপর আনন্দ করা যায়, তবে প্রথম টেস্টে আমরা প্রত্যাশা মত কিছুই করতে পারিনি। মিস ফিল্ডিংয়ের পাশপাশি কয়েকটি ক্যাচও ড্রপ হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা চাচ্ছিলাম ২-০ তে সিরিজ জিততে। সেখানে সিরিজে সমতা। প্রথম টেস্টে বেশকিছু ভুল ছিল। তবে দ্বিতীয় টেস্টে একাদশের বাইরের খেলোয়াড়দেও পাশাপাশি টিম ম্যানেজমেনটর সবাই মিলে নব উদ্যমে শুরু করায় জয় সহজ হয়েছে। যদিও জিততে সময় লেগেছে অনেক বেশি।

নিজের সেঞ্চুরি সম্পর্কে তিনি বলেন, শেষ পাঁচ টেস্টে আমার ভালো স্কোর ছিল না, এমকি কোন হাফ-সেঞ্চুরিও ছিল না। দলের অধিনায়ক হিসেবে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়ার কথা। তবে ব্যাটিংয়ে আরও উন্নতি করতে হবে। তাহলে নিজের ক্যারিয়ারের পাশাপাশি দলের জন্যও সফলতা আসবে।

চতুর্থ দিন সকালে জিম্বাবুয়েকে ব্যাটিংয়ে না পাঠিয়ে নিজেরা নিরাপদ থাকতে ব্যাট করতে আসার বিষয়ে তিনি বলেন, মিরপুরের উইকেট পঞ্চম দিনে এসেও ভালো আচরণ করছে। আজ (বৃহস্পতিবার) শেষ দিন সকালে প্রথম ঘণ্টায় কিছুটা টার্ন করলেও পরে আবার স্বাভাবিক আচরণ করেছে। তাই প্রতিপক্ষকে ব্যাটিং না দিয়ে নিজেরা একটা সেশন বেশি ব্যাট করেছেন।

অভিষিক ম্যাচে পেসার খালেদের পারফরমেন্স সম্পর্কে রিয়াদ বলেন, সে যেভাবে বোলিং করেছে, ক্যাচ না ফেললে একাধিক উইকেট তার প্রাপ্য ছিল। ভাগ্য দার পক্ষে ছিল না। দু-একটা উইকেট পেলে তার বল হয়ত আরও ভালো হতে পারত।

আগামী ২২ নভেম্বর চট্টগ্রামে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ শুরু করবে বাংলাদেশ দল। প্রসঙ্গক্রমে এ বিষয়েও কথা বলেন রিয়াদ।

ক্যারিবয়দের বিপক্ষে স্পিন সহায়ক উইকেটে তাদে পেসাররা ভয়ংকর হয়ে উঠবে কি না -এ প্রশ্নে রিয়াদ জানান, বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের তাদের বিপক্ষে খেলার মত যোগ্যতা আছে। ক্যারিবীয়রা প্রায় দু’মাস ধরে ভারতে। ফলে এ অঞ্চলের আবহাওয়া ও কন্ডিশনের সঙ্গে পরিচিত হয়েছে।

জিম্বাবুয়ে হ্যামিলটন মাসাকাদজাও দলের পারফরমেন্সের প্রশংসা করেন। তিনি বলেছেন, ‘দলের ছেলেরা তাদের প্রমাণ করেছে। বিশেষ করে ব্রেন্ডন টেইলর বিশ্বমানের পারফরমেন্স দেখিয়েছেন। মূলত তিনিই দলকে পথ দেখিয়েছেন। পেস বোলাররাও ভালো করেছেন প্রতিবারই নতুন বলেতারা উইকেট পেয়েছেন। তবে সব সময়ই শেখার কিছু থাকে। প্রথম দিনের দ্বিতীয় শেসনেই আমরা পিছিয়ে পড়েছি। তবে পুরো সিরিজেই আমরা ভালো পারফরমেন্স করেছি।’


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

শঙ্কা কাটিয়ে বাংলাদেশের বড় জয়

শঙ্কা কাটিয়ে বাংলাদেশের বড় জয়

মুশফিক-তাইজুলের হাতে ম্যাচ ও সিরিজ সেরা পুরস্কার

মুশফিক-তাইজুলের হাতে ম্যাচ ও সিরিজ সেরা পুরস্কার

জিম্বাবুয়েকে ফলোঅন না করিয়ে ব্যাট হাতে বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়েকে ফলোঅন না করিয়ে ব্যাট হাতে বাংলাদেশ

মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরি, জিম্বাবুয়ের টার্গেট ৪৪৩

মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরি, জিম্বাবুয়ের টার্গেট ৪৪৩