মিঠুন-সৌম্যর ব্যাটে রান, সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪২ এএম, ১৮ আগস্ট ২০১৮
মিঠুন-সৌম্যর ব্যাটে রান, সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

ছবি: ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। সিরিজের শেষে ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে মুমিনুল-সৌম্যরা।

ডাবলিনে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচটি নেমে আসে ১৮ ওভারে। শুক্রবার প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আইরিশরা ৫ উইকেটে ১৮৩ রান তোলেন। লক্ষ্যটা কঠিন হলেও সেটা অনায়াসে টপকে যায় বাংলাদেশ। ৪ উইকেট হারিয়ে পৌঁছে যায় জয়ের লক্ষ্যে।

বাংলাদেশের দুই ওপেনার মিঠুন ও সৌম্য সরকার দারুণ খেলেছেন। এ জুটির ১১৭ রানের ওপর ভর করেই ২-১–এ সিরিজ জেতে নিয়েছে সফরকারীরা। সৌম্য ৩০ বলে ৪৭ রানের ইনিংস খেলেন। ২ চার ও ৪ ছক্কায় ৪৭ রান তুলে থামলেও আরেক প্রান্তে বিধ্বংসী ব্যাটিং করেন মিঠুন। মাত্র ৩৯ বলে ৭ চার ও ৬ ছক্কায় করেন ৮০ রান।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা আয়ারল্যান্ডের ভিত গড়ে দেন উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। পোর্টারফিল্ড ৩৯ বলে খেলে দলীয় সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন। আরেক ব্যাটসম্যান সিমি ৪১ বলে করেন ৬৭ রান। এ দুই ব্যাটসম্যানের অর্ধশতকই আইরিশদের ভিত মজবুত করে।

তবে বল হাতে বাংলাদেশের মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ছিলেন দুর্দান্ত। ২৮ রানের বিনিময়ে স্বাগতিকদের ৪ উইকেট তুলে নেন তরুণ এ পেসার। সিরিজ সেরা হয়েছেন বাংলাদেশের সৌম্য সরকার এবং ২৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের সেরা বোলার হয়েছেন সাইফ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
আয়ারল্যান্ড : ১৮ ওভারে ১৮৩/৫ (টম্পসন ১২, পোর্টারফিল্ড ৭৮, সিমি ৬৭; সাইফ ৪/২৮, শরিফুল ১/৪১)
বাংলাদেশ : ১৬.৫ ওভারে ১৮৭/৪ (মিঠুন ৮০, সৌম্য ৪৭, জাকির ১৩, আল আমিন জুনিয়র ২১*; সিমি ০/৪৩, চেইস ০/২৭, ডেভিড ডেলানি ০/১৪, লিটল ১/৫০, শেন ৩/৩৬)

ফল : বাংলাদেশ ‘এ’ দল ৬ উইকেটে জয়ী
সিরিজ : তিন ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয়ী বাংলাদেশ।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

অদৃশ্য বন্দি থেকে মুক্ত আশরাফুল

অদৃশ্য বন্দি থেকে মুক্ত আশরাফুল

এশিয়া কাপের প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন ৩১ টাইগার

এশিয়া কাপের প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন ৩১ টাইগার

চাকরি হারাচ্ছেন জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট স্টাফরা

চাকরি হারাচ্ছেন জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট স্টাফরা

অস্ট্রেলিয়া দলে স্মিথ-ওয়ার্নারকে ‘নিদারুনভাবে প্রয়োজন’

অস্ট্রেলিয়া দলে স্মিথ-ওয়ার্নারকে ‘নিদারুনভাবে প্রয়োজন’