কম বেতনেও শ্রীলঙ্কার কোচ হতে চান হাথুরু

আবু রায়হান ইফাত
প্রকাশিত: ০৬:২১ এএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৭
কম বেতনেও শ্রীলঙ্কার কোচ হতে চান হাথুরু

বিশ্বের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেতনধারী কোচ হিসেবে বাংলাদেশে এসিছেলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)সঙ্গে চুক্তি করেছেন। তবে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন। শোনা যাচ্ছে, নিজ দেশ শ্রীলঙ্কার কোচ হতে যাচ্ছেন হাথুরু। তাও আবার অল্প বেতনে।

শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী দ্যাসিরি জয়াস্কারা বলেছেন, শ্রীলঙ্কার কোচ হিসাবে চাকরি নিতে বড় বেতন পাওয়ার আশা করছেন না হাথুরুসিংহে।

তিনি বলেন, হাথুরুসিংহেকে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট টিমের প্রধান কোচ হিসেবে দেখতে চান এবং আগামী বিশ্বকাপের জন্য দলকে প্রস্তুত করার জন্য হাথুরুকে স্বাগত জানাই।

শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী আরও বলেন, হাথুরু এখানে (শ্রীলঙ্কায়) একটি বড় বেতন আশা করছেন না এবং তিনি দেশের জন্য কিছু করতে চান। তার বড় বেতনের চাকরি রেখে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে এখানে আসার জন্য আমরা তাকে সম্মান করি এবং যথাযথ তার সম্মান বজায় রাখবো।

এদিকে, চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিদায় অনেকটাই নিশ্চত হয়ে গেলেও বিসিবি তাকে ডেকে পাঠিয়েছে। বিসিবি কথা বলতে চায় তার সঙ্গে। তবে হথুরুসিংহের পদত্যাগ পত্রগ্রহণ করা হবে কিনা, নাকি আবার তাকে ফেরানোর চেষ্টা করা হবে সেটা অবশ্য পরিষ্কার করে কিছু জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের মে মাসে চন্ডিকা হাথুরুসিংহকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তার সঙ্গে চুক্তি ছিল ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। এরই মধ্যে হাথুরুর অধীনে ঈর্ষণীয় সাফল্য পায় বাংলাদেশ।

বিশেষ করে ২০১৪ সালের শেষ ভাগে এসে জিম্বাবুয়েকে ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ। ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের মত দলকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা, ঘরের মাঠে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়, ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়াকে টেস্টে হারিয়েছে বাংলাদেশ।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

হাথুরের পদত্যাগ : নিশ্চিত করলেন পাপন

হাথুরের পদত্যাগ : নিশ্চিত করলেন পাপন

‘শ্রীলঙ্কার কোচ হিসেবে ভালো হবেন হাথুরু’

‘শ্রীলঙ্কার কোচ হিসেবে ভালো হবেন হাথুরু’

‘ভারতকে চাপ দেয়ার ক্ষমতা নেই আইসিসির’

‘ভারতকে চাপ দেয়ার ক্ষমতা নেই আইসিসির’

বাংলাদেশের প্রয়োজন ১১, ৩০ নয় : জয়াবর্ধনে

বাংলাদেশের প্রয়োজন ১১, ৩০ নয় : জয়াবর্ধনে