সাসেক্সের সঙ্গে রশিদের চুক্তি, খেলবেন আগামীতেও

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩২ এএম, ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সাসেক্সের সঙ্গে রশিদের চুক্তি, খেলবেন আগামীতেও

কাউন্টি ক্রিকেটে সাসেক্স শার্কের হয়ে আগামী মৌসুমেও ভিটালিটি ব্লাস্টের টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে খেলবেন আফগানিস্তানের তরুণ লেগ-স্পিনার রশিদ খান। চলতি বছরও সাসেক্সের হয়ে খেলেছেন তিনি।

আগামী মৌসুমের জন্য ইতোমধ্যে নিজের চুক্তি সম্পন্ন করেছেন রশিদ। তবে ঐ মৌসুমের প্রথম পর্ব পর্যন্ত সাসেক্সের জার্সি গায়ে দেখা যাবে তাকে। কারণ আগামী বছরের ক্যারিবীয়ান প্রিমিয়ার লিগ শুরুর আগ পর্যন্ত সাসেক্সে খেলবেন রশিদ।

চলতি বছর ১১ ম্যাচে ১৭ উইকেট শিকার করেছেন রশিদ। উইকেট শিকারের গড় ছিল ১৪ দশমিক ৩৫। ইকোনমি রেট ছিল ৬ দশমিক ৫৯। ২০১৫ সালের পর সাসেক্সেকে কোয়ার্টারফাইনালে তুলতে বড় ভূমিকাই রেখেছেন রশিদ। তবে দলের হয়ে কোয়ার্টারফাইনালে খেলতে পারেননি রশিদ। কারণ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আফগানিস্তানের দ্বিপক্ষীয় সিরিজ চলছে। এমনকি সেমিফাইনাল ও ফাইনালেও দলকে সার্ভিস দিতে পারবেন না তিনি। কারণ সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন রশিদ।

সাসেক্সের সাথে আবারও চুক্তি করার বিষয়টি এক ভিডিও বার্তায় নিশ্চিত করেন রশিদ। তিনি বলেন, ‘২০১৯ সালে আবারও সাসেক্সে খেলতে পারবো ভেবে আমি বেশ খুশি। এখানে এ বছর সতীর্থ-কোচিং স্টাফ ও টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে সেরা সময় কাটিয়েছি আমি। আগামী বছর সাসেক্সে খেলার জন্য আমার তড় সইছে না।’

‘দল কোয়ার্টার ফাইনাল পেরিয়ে সেমিতে উঠায় আমি ভীষণ খুশি। এরপর দল ফাইনালেও উঠবে বলে আশা রাখি। এ জন্য দলকে শুভ কামনা জানাচ্ছি। আমি আশা করছি দল হিসেবে সাসেক্স ভালো খেলবে এবং শিরোপা জিততে পারবে। জ্বলে উঠো শার্ক।’-বলেন তিনি।

আগামী বছর রশিদের সাসেক্সে খেলা নিশ্চিত হওয়ায় খুশি দলের কোচ ও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক খেলোয়াড় জেসন গিলেস্পি। তিনি বলেন, ‘আমি সত্যিই উচ্ছসিত যে, আবারও সাসেক্সের হয়ে খেলবে রশিদ। সে সাসেক্সের হয়ে এবার দারুন পারফরমেন্স করেছে। আশা করছি, আগামী বছরও ভালো করতে পারবে রশিদ।’


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

চ্যাম্পিয়ন হতে বিশ্বাস রাখতে বলেছেন মাশরাফি

চ্যাম্পিয়ন হতে বিশ্বাস রাখতে বলেছেন মাশরাফি

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজের সূচি ঘোষণা করলো পাকিস্তান

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজের সূচি ঘোষণা করলো পাকিস্তান

ক্রিকেটে নবীর অনন্য রেকর্ড

ক্রিকেটে নবীর অনন্য রেকর্ড

প্রমাণ হলে কঠিন সিদ্ধান্ত

প্রমাণ হলে কঠিন সিদ্ধান্ত