দ্রুত উইকেট হারানোই হারের কারণ : সাকিব

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৫ পিএম, ০১ আগস্ট ২০১৮
দ্রুত উইকেট হারানোই হারের কারণ : সাকিব

টেস্টর মতো টি-টোয়েন্টিতেও হার দিয়ে সিরিজ শুরু করলো সফরকারী বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বৃষ্টি আইনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৭ উইকেটে হেরে গেছে টাইগাররা। এ হারের জন্য শুরুতে উইকেট হারানোকে দুষছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায় বাসেটেরেতে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে বাংলাদেশ। ইনিংসের প্রথম বলেই আউট হন টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অফ-স্পিনার অ্যাশলে নার্সকে উইকেট ছেড়ে মারতে গিয়ে নিজের ইনিংসের সমাপ্তি নিজেই ডেকে আনেন তামিম। শূন্য হাতে ফিরতে হয় ওয়ানডে সিরিজে ২৮৭ রান করা তামিমকে।

তামিমের দেখানো পথে হেটেছেন আরেক ওপেনার সৌম্য সরকারও। নিজের প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে শূন্য হাতে ফিরে যান তিনি। এবারও ঘাতক নার্স। প্রথম ওভারে দুই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তবে সেখান থেকে দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন লিটন দাস ও অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে ভালোই করছিলেন লিটন ও সাকিব। ২৮ বলে ৩৮ রান যোগ করে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেন তারা। তবে ষষ্ঠ ওভারের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে দলীয় ৪৩ রানেই বিদায় নিতে হয় লিটন ও সাকিবকে। ফলে আবারও চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ।

সেই চাপ থেকে এক পর্যায়ে মুক্তও হয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে বড় লক্ষ্য দাঁড় করাতে পারেনি টাইগাররা। ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৩ রান পায় বাংলাদেশ। পরবর্তীতে বৃষ্টির কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে লক্ষ্যমাত্রা কমে দাঁড়ায় ১১ ওভারে ৯১ রান। সেই টার্গেট ১১ বল বাকি রেখেই স্পর্শ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

৪৩ রানে ৪ উইকেট হারানোকেই ম্যাচ হারের কারণ বলে মনে করেন সাকিব। বলেন, আমরা দ্রুত এবং আমার মনে হয় আমরা গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট হারিয়েছি। আমি ও লিটন জুটি গড়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি। ঠিক তেমনি, মুশফিকুর-মাহমুদুল্লাহ ভালো একটি জুটি গড়েছিলেন। কিন্তু মুশফিক আউট হলে দশ ওভারের মধ্যে আমরা পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলি।

তিনি আরও বলেন, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দ্রুত পাঁচ উইকেট হারালে যেকোন দলের জন্য খেলাটা ও ম্যাচে ফেরা কঠিন হয়ে যায়। তাদের বেশ ক’জন ভালো টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যান রয়েছে এবং তাদের চ্যালেঞ্জ জানাতে হলে নিজেদের সেরাটা দিতে হবে।

প্রথম টি-টোয়েন্টি হারলেও পরের দু’টিতে ঘুড়ে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন সাকিব। বলেন, এখনও আমাদের সামনে দু’ম্যাচ রয়েছে। ভিন্ন ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ও তৃতীয় টি-টোয়েন্টি। নেতিবাচক দিকের চেয়ে আজ আমরা ইতিবাচক দিকগুলোই বেশি নিতে পেরেছি।

নার্সের বোলিং তোপে প্রথমেই দু’উইকেট হারিয়ে ফেলায় হতাশ হয়েছেন টাইগার দলপতি সাকিব। তবে নার্সের বোলিংয়ের প্রশংসা করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। তিনি বলেন, শুরুতেই ভালো বল করেছেন নার্স এবং আমাদের জন্য ভালো শুরু এনে দিয়েছেন। এটি প্রত্যকের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ ছিল এবং প্রত্যকে নিজেদের প্রকাশ করতে পেরেছে।

খেলা শেষে ম্যাচের সেরা রাসেল বলেন, আমরা ওয়ানডে সিরিজ হেরেছি কিন্তু আমরা এ ম্যাচ থেকে ভালো কিছু অর্জন করতে চেয়েছিলাম। আমাদের লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। আমরা ঘুঁড়ে দাঁড়িয়েছি এবং জিততে পেরেছি।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

এলোমেলো ব্যাটিংয়েই হারলো বাংলাদেশ

এলোমেলো ব্যাটিংয়েই হারলো বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা

উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে বাংলাদেশের সিরিজ জয়

উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে বাংলাদেশের সিরিজ জয়