টপ অর্ডারের ব্যর্থতার পরও এগিয়ে বাংলাদেশ

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৯:৪৭ পিএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
টপ অর্ডারের ব্যর্থতার পরও এগিয়ে বাংলাদেশ

প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির পর বল হাতেও ভেল্কি দেখিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। টাইগার স্পিনারদের ঘূর্ণিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৫৯ রানে গুটিয়ে যাওয়ায় ১৭১ রানের লিড পায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৩৩ রানেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারায় বাংলাদেশ। তবে তৃতীয় দিন শেষে চট্টগ্রাম টেস্টে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিকরা।

দুই ম্যাচ সিরিজে চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২৫৯ রানে অলআউট করে দেয় বাংলাদেশের বোলাররা। ফলে প্রথম ইনিংস থেকে ১৭১ রানের লিড এবং তৃতীয় দিন শেষে ৩ উইকেটে ৪৭ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। অর্থাৎ, দিন শেষে ৭ উইকেট হাতে নিয়ে ২১৮ রানে এগিয়ে টাইগাররা।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে নিজেদের প্রথম ইনিংস শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দিন শেষে ২৯ ওভারে ২ উইকেট ৭৫ রান করেছিল সফরকারীরা। অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ৪৯ ও এনক্রুমার বোনার ১৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।

তবে তৃতীয় দিন শুক্রবার দিনের প্রথম বলেই বোনারকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান বাংলাদেশের স্পিনার তাইজুল ইসলাম। বোনারের বিদায়ের পর টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০তম হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন ব্র্যাথওয়েট। হাফ-সেঞ্চুরির পর কাইল মায়ারসের সাথে জুটিতে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন।

হাফ-সেঞ্চুরির পরই জুটিতে ভাঙন ধরান বাংলাদেশের অফ-স্পিনার নাঈম হাসান। দারুণ এক ডেলিভারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলপতিকে বোল্ড করেন নাঈম। ১১১ বলে ১২টি চারে ৭৬ রান করেন ব্র্যাথওয়েট। চতুর্থ উইকেটে মায়ারসের সাথে ৬৮ বলে মূল্যবান ৫৫ রান যোগ করেন তিনি।

অধিনায়কের বিদায়ের পর আক্রমণাত্মক হয়ে বাংলাদেশ বোলারদের উপর চাপ সৃষ্টি করতে চেয়েছিলেন মায়ারস। দৃষ্টিনন্দন কিছু শটে ৭টি বাউন্ডারিও তুলে নেন তিনি। এমন অবস্থায় মায়ারসকে থামান স্পিনার মিরাজ। মিরাজের বলে লেগ বিফোর হওয়ার আগে ৬৫ বলে ৪০ রান করেন মায়ারস।

২৪ রানের ব্যবধানে দুই সেট ব্যাটসম্যান ব্র্যাথওয়েট ও মায়ারসের আউটে চাপে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলকে চাপ থেকে মুক্ত করতে সতর্কতার সাথে এগোতে থাকেন জার্মেই ব্ল্যাকউড ও উইকেটরক্ষক জসুয়া ডা সিলভা। প্রথম সেশনে এই দুই ব্যাটসম্যানকে আউট করতে না পারায় ব্লাকউড ৩৪ ও সিলভা ১২ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন-বিরতিতে যান।

বিরতি থেকে ফিরেও প্রতিপক্ষ বোলারদের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা দিচ্ছিলেন ব্ল্যাকউড ও সিলভা। দলীয় ১৫৪ রানে জুটি বেঁধে দলের স্কোর আড়াইশ পার করেন তারা। এমন অবস্থায় সিলভাকে শিকার করে বাংলাদেশকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন নাঈম। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ৪২ রানে আউট হন সিলভা।

সতীর্থকে হারিয়ে খেই হারিয়ে ফেলেন দারুণ খেলতে থাকা ব্লাকউড। ৩ বল পরই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। বাংলাদেশের বোলারদের দারুণভাবে সামলাতে থাকা ব্ল্যাকউডকে ৬৮ রানে থামান মিরাজ। টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৪তম হাফ-সেঞ্চুরির করা ব্লাকউড ১৪৬ বল খেলে ৯টি চার হাঁকান।

দলীয় ২৫৩ রানে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে সিলভার আউটের পর ধস নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসে। এরপর ২৫৯ রানে অলআউট হয় তারা। অর্থাৎ শেষ ৬ রানে শেষ ৫ উইকেট হারায় ক্যারিবীয়রা।

মিরাজ ২৬ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। টেস্ট ক্যারিয়ারে এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো চার উইকেট নিলেন মিরাজ। এছাড়া মোস্তাফিজুর-নাঈম-তাইজুল ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২৫৯ রানে গুটিয়ে দিয়ে প্রথম ইনিংস থেকে ১৭১ রানের লিড পায় বাংলাদেশ। ফুরফুরা মেজাজে শেষ সেশনে নিজেদের ইনিংস শুরু করে বাংলাদেশ। তবে ব্যাট হাতে নেমে মহাবিপদে পড়ে বাংলাদেশ। ১ রানে ২ উইকেট হারায় টাইগাররা।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের চতুর্থ ও শেষ বলে বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল ও তিন নম্বরে নামা নাজমুল হোসেন শান্তকে রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে পাঠান ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনার কর্নওয়াল। শুরুতেই ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে চিন্তামুক্ত করার চেষ্টা করেন আরেক ওপেনার সাদমান ইসলাম ও অধিনায়ক মমিনুল হক।

উইকেট বাঁচিয়ে খেলতে শুরু করেন সাদমান। অন্যপ্রান্তে রানের চাকা সচল করেন মমিনুল। ফলে ১৪ ওভার পর্যন্ত ৩২ রানের জুটি গড়ে ফেলেন তারা। যেখানে মাত্র ৫ রান অবদান ছিল সাদমানের। আর মমিনুলের ছিল ৩৮ বলে ২৭ রান। তবে ১৫তম ওভারের প্রথম বলে সাদমানের বিদায় নিশ্চিত করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার গাব্রিয়েল। ৪২ বলে ৫ রান করে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন সাদমান।

৩৩ রানে তিন উইকেট হারানোর পর দিনের শেষ সময়ে আর কোন উইকেট পতন হতে দেননি মমিনুল ও মুশফিকুর রহিম। ফলে তৃতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৩ উইকেটে ৪৭ রান। আর প্রথম ইনিংস থেকে পাওয়া ১৭১ রানসহ বাংলাদেশের লিড ২১৮ রান। মমিনুল ৩১ ও মুশফিক ১০ রানে অপরাজিত আছেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কর্নওয়াল ২টি ও গ্যাব্রিয়েল ১টি উইকেট শিকার করেছেন।

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

স্ক্যান রিপোর্টে সাকিবকে নিয়ে শঙ্কা বাড়লো

স্ক্যান রিপোর্টে সাকিবকে নিয়ে শঙ্কা বাড়লো

মিরাজের ঘূর্ণি, ফলোঅন এড়িয়ে ধসে পড়লো উইন্ডিজ

মিরাজের ঘূর্ণি, ফলোঅন এড়িয়ে ধসে পড়লো উইন্ডিজ

পরিবর্তনে যেমন হলো বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ সূচি

পরিবর্তনে যেমন হলো বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ সূচি

প্রথম সেঞ্চুরিতেই তিন বড় ভাইয়ের পাশে মিরাজ

প্রথম সেঞ্চুরিতেই তিন বড় ভাইয়ের পাশে মিরাজ