× Advertisement

স্বপ্ন দেখিয়েও কাঁদলেন জামাল-তপুরা

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৭:২৬ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০২১
স্বপ্ন দেখিয়েও কাঁদলেন জামাল-তপুরা

ম্যাচের নবম মিনিটে সুমন রেজার গোলে সাফের ফাইনালে খেলার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছিল বাংলাদেশ ফুটবল দল। তবে শেষ মুহূর্তে লিড আর ধরে রাখতে পারেননি জামাল ভূঁইয়ারা। ৮৮তম মিনিটে বিতর্কিত পেনাল্টি থেকে সফল স্পট কিকে উল্লাসে মাতে নেপাল। তারও আগে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন গোলকিপার আনিসুর রহমান জিকো।

বুধবার (১৩ অক্টোরব) রাউন্ড পর্বের শেষ ম্যাচে র‌্যাংকিংয়ে ২১ ধাপ এগিয়ে থাকা শক্তিশালী নেপালের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ ফুটবল দল। এ ম্যাচে জিতলেই দীর্ঘ ১৬ বছর পর সাফের ফাইনালে উঠতো বাংলাদেশ।

জয় নয়, পয়েন্ট টেবিলে এগিয়ে থাকায় ড্র করেই ফাইনালে পা রাখতো নেপাল। পিছিয়ে পড়েও সেটিই করলো তারা। শেষ দিকে রেফারির বিতর্কিত পেনাল্টির সিদ্ধাতে ড্র করে নেপাল। অস্কার ব্রুজনের দল বাংলাদেশকে বিদায় করে দিয়ে সাফের ফাইনালে খেলা নিশ্চিত করলো নেপালিরা।

মালদ্বীপের ন্যাশনাল ফুটবল স্টেডিয়ামে ম্যাচের ‍শুরুতেই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ম্যাচের ৯ম মিনিটে জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি কিক থেকে উড়ে আসা বলে দারুণ হেডে গোল করেন ডি বক্সে থাকা সুমন রেজা। শুরুতে এগিয়ে ম্যাচের ৭৮ মিনিট পর্যন্ত লিড ধরে রাখে বাংলাদেশ।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে বেশ কয়েকবার গোলের ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেলেও বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ। নেপালের ডি বক্সে গিয়ে আক্রমণ করলেও বল পাস না করা এবং খেই হারিয়ে ফেলায় আর গোলের দেখা পায়নি তপু বর্মণরা। সেটারই খেসারত দেয় বাংলাদেশ।

বার বার সুযোগ পেয়েও লিড বাড়াতে না পারা বাংলাদেশের উপর পিদ নেমে আসে ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে। ফাঁকায় বল পেয়ে নেপালের আক্রমণ ঠেকাতে উপরে উঠে বাধা দিলে হাতে বল লাগে গোলকিপার আনিসুর রহমান জিকোর। কোন প্রকার সময়ক্ষেপণ না করে লাল কাড উচিয়ে দৌড়ে আসেন রেফারি।

গোলকিপার জিকোকে হারিয়ে গোলপোস্ট সামলানোর দায়িত্ব দেওয়া হয় আশরাফুল ইসলাম রানার কাঁধে। একজন কম নিয়েও লিড ধরে রেখে খেলছিল বাংলাদেশ। তবে বিপত্তি ঘটে ৮৭তম মিনিটে। বক্সে হেড করতে গিয়ে অনেকটা ফলো থ্রুয়ে পড়ে যান অঞ্জন। সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।

বেশ কয়েকবার রিপ্লে দেখানো হলেও সাদউদ্দিনের সঙ্গে অঞ্জনের তেমন কোনো সংঘর্ষ দেখা যায়নি। তবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের স্তম্ভিত করে পেনাল্টির বাঁশিতেই বহাল থাকেন রেফারি। মাঠে খেলোয়াড়রা প্রতিবাদ জানান। তবে লাভ হয়নি।

অঞ্জনের নেওয়া স্পট কিক অনেকটা ঠিক দিকে ডাইভ দিলেও বল আটকাতে পারেননি রানা। পেনাল্টি থেকে গোল পেয়েই উল্লাসে মেতে উঠে নেপালের ফুটবলাররা। কারণ, ড্র করতে পারলেই তাদের ফাইনাল নিশ্চিত, এটা সবারই জানা ছিল।

রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে গোলে খেয়ে সমতায় ফিরলেও থেকে যায়নি বাংলাদেশ। অনেকটা নেমে খেলা নেপালের দূর্গে বেশ কয়েকটি আক্রমণ করেছে বাংলাদেশ। তবে কাঙ্ক্ষিত সেই গোলের দেখা আর পায়নি জামাল ভূঁইয়া। অতিরিক্ত পাওয়া ৬ মিনিট পর রেফারি শেষ বাঁশি বাজালে কান্নায় ভেঙে পড়েন তপু বর্মণরা।

স্পোর্টসমেইল২৪/আরএস

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

শেরপুরে ফুটবল ম্যাচে ইতিহাস সর্বাধিক দর্শক

শেরপুরে ফুটবল ম্যাচে ইতিহাস সর্বাধিক দর্শক

মালদ্বীপের কাছে হারলো বাংলাদেশ

মালদ্বীপের কাছে হারলো বাংলাদেশ

১০ জনেও ভারতকে রুখে দিয়ে পয়েন্ট অর্জন করলো বাংলাদেশ

১০ জনেও ভারতকে রুখে দিয়ে পয়েন্ট অর্জন করলো বাংলাদেশ

জয় দিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করলো বাংলাদেশ

জয় দিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করলো বাংলাদেশ