ইংল্যান্ডে নতুন ঘোষণায় আটকে গেল দর্শকদের ফেরা

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৭:০২ পিএম, ০১ নভেম্বর ২০২০
ইংল্যান্ডে নতুন ঘোষণায় আটকে গেল দর্শকদের ফেরা

প্রাণঘাতি করোনার জন্য যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী নতুন করে পুরো ইংল্যান্ড জুড়ে এক মাসের লকডাউন ঘোষণা করেছেন। শনিবার (৩১ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণায় আটকে গেল খেলার মাঠে দর্শকদের ফেরা। এখন বড় ক্রীড়া ইভেন্টগুলোতে দর্শকের উপস্থিতির জন্য আরও অপেক্ষা করতে হবে।

ঘোষণা অনুযায়ী ৫ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ লকডাউন কার্যকর হবে। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা হঠাৎ করেই বেড়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বৃটিশ সরকার। পানশালা ও রেস্টুরেন্টসহ সবধরনের বিনোদন কেন্দ্র ইতোমধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

করোনার প্রকোপ বাড়লেও খেলাধুলা বন্ধ করার ঘোষণা দেওয়া হয়নি। সাংষ্কৃতিক সচিব অলিভার ডাউডেন এক টুইটার বার্তায় নিশ্চিত করেছেন যে, সবধরনের খেলাধুলা চলবে, তবে তা অবশ্যই দর্শকশূন্য স্টেডিয়াম হতে হবে।

চলতি বছরের মার্চ থেকে জুন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের প্রথম ধাপে ২০১৯-২০ প্রিমিয়ার লিগ মৌসুম বন্ধ ছিল। তবে ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আসায় লকডাউন উঠিয়ে নেওয়া হয়। যদিও দর্শকের উপস্থিতির বিষয়টি নিয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। ফুটবল ছাড়াও রাগবি, টেইনস ও ঘোড় দৌঁড়ের মতো হাই প্রোফাইল ক্রীড়াগুলোকেও দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে আয়োজনের অনুমতি দেওয়া হয়।

এর মাঝে ১৫-২২ নভেম্বর লন্ডনের ও এরিনাতে মৌসুমের শেষ ইভেন্ট এটিপি ট্যুর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। যেখানে নোভাক জকোভিচ ও রাফায়েল নাদালের মতো শীর্ষ খেলোয়াড়রা অংশ নেবেন। এক বিবৃতিতে এটিপি জানিয়েছে, বৃটিশ সরকারের ঘোষণার পর এটিপিও দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

[sportsmail24.com এর ওয়েবসাইট এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও ব্রাউজ করে পড়তে পারবেন। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনে স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস থেকেও খেলাধুলার সকল নিউজ পড়তে পারবেন। ইনস্ট্রল করুন স্পোর্টসমেইল২৪.কমের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

এন্ডারসনের নামে হচ্ছে সড়কের নাম

এন্ডারসনের নামে হচ্ছে সড়কের নাম

বেতন কর্তনে রাজি মরগান-রুট-স্টোকসরা

বেতন কর্তনে রাজি মরগান-রুট-স্টোকসরা

ইংল্যান্ডের সফরে নিজ মাঠে ক্রিকেট ফেরাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা

ইংল্যান্ডের সফরে নিজ মাঠে ক্রিকেট ফেরাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা

পাকিস্তানে যেতে ইতিবাচক ইংল্যান্ড

পাকিস্তানে যেতে ইতিবাচক ইংল্যান্ড