সৌম্যের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, জয় কেড়ে নিল ব্রাদার্স

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:২৭ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০১৮
সৌম্যের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, জয় কেড়ে নিল ব্রাদার্স

ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেললেন জাতীয় দলের খেলোয়াড় সৌম্য সরকার। তবে শেষ বলে বাউন্ডারি মেরে তাদের কাছ থেকে জয় কেড়ে নিয়েছে ব্রাদার্সের নাজমুস সাদাত।

ওপেনার সৌম্য সরকারের ১২৭ বলে ১৫৪ রানের সুবাদে রেলিগেশন এড়ানোর ম্যাচে ব্রাদার্সকে ৩৩৫ রানের টার্গেট দেয় অগ্রণী ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। সেই লক্ষ্য পূরণে দলের চার ব্যাটসম্যানের হাফ-সেঞ্চুরিতে শেষ ওভারে ৯ রান প্রয়োজন পড়ে ব্রাদার্সের। শেষ ওভারের প্রথম পাঁচ ডেলিভারিতে থেকে ৫ রান তুলে নিয়ে শেষ বলে ৪ রান দরকার পড়ে ব্রাদার্সের। ম্যাচের শেষ বলে বাউন্ডারি মেরে ব্রাদার্সকে ৪ উইকেটে জয়ের স্বাদ দিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেটের লিগের (ডিপিডিসিএল) রেলিগেশনের হাত থেকে রক্ষা করেন সাত নম্বরে নামা নাজমুস সাদাত।

এ জয়ে ১৩ খেলা শেষে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগে বেশ ভালোভাবেই টিকে থাকলো ব্রাদার্স। অন্যদিকে সমান সংখ্যক ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের সাথে প্রথম বিভাগে নেমে গেল অগ্রণী ব্যাংক। ১৩ খেলায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম বিভাগে আগেভাগেই নেমে যায় কলাবাগান।

সাভারের বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে টস হেরে প্রথমে ফিল্ডিং বেছে নেয় ব্রাদার্স। ব্যাটিংয়ে ভালো শুরুর পথেই ছিলেন অগ্রণী ব্যাংকের দুই ওপেনার অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফীস ও সৌম্য সরকার। ৪৯ বলে ৪৪ রান যোগ করেন তারা। ২৪ রান করে নাফীস ফিরলেও উইকেটের সাথে মানিয়ে নেন সৌম্য। এক প্রান্ত আগলে নিজের ও দলের স্কোর বড় করছিলেন তিনি।

মিডল-অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানের দ্রুত বিদায়ে চাপে পড়ে যান সৌম্য। কিন্তু পঞ্চম উইকেটে ভারতের রিষি ধাওয়ানকে নিয়ে চাপমুক্ত হন সৌম্য। সেই সাথে লিস্ট-‘এ’ ক্যারিয়ারে তৃতীয় সেঞ্চুরির স্বাদ নেন তিনি। তিন অংকে পা দিয়েও রান তোলায় মনোযোগী ছিলেন এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। তাই লিস্ট-‘এ’ ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো দেড়শ’ রানের স্বাদ নেন তিনি।

শুধুমাত্র লিস্ট-‘এ’ ক্রিকেটেই নয়, ৫০ ওভারের আন্তর্জাতিক ম্যাচেও কখনো দেড়শ’ রান করতে পারেননি সৌম্য। শেষ পর্যন্ত ৯টি চারের সাথে ১১টি ছক্কায় ১২৭ বলে ১৫৪ রান করেন সৌম্য। এ ছাড়া রিসি ধাওয়ানের অপরাজিত ৮০ রানের সুবাদে ৩৩৪ রানের বড় সংগ্রহ পায় অগ্রণী ব্যাংক। নির্ধারিত ওভারের ৫ বল আগেই সবক’টি উইকেট হারায় অগ্রণী ব্যাংক। ব্রাদার্সের পক্ষে বল হাতে ৩টি করে উইকেট নেন সোহরাওয়ার্দি শুভ ও শাখাওয়াত হোসেন।

৩৩৫ রানের বড় টার্গেটে শুরু থেকেই দুর্দান্ত জবাব দেয় ব্রাদার্স। উপরের সারির চার ব্যাটসম্যানই হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নিয়ে দলকে লড়াইয়ে রাখেন। দুই ওপেনার মিজানুর রহমান ৬২, জুনায়েদ সিদ্দিকী ৮৩, মাইশুকুর রহমান ৮২ ও উইকেটরক্ষক ভারতের দেবব্রত দাস ৭৩ রান করেন।

মিজানুর-জুনায়েদ-মাইশুকুরের ব্যাটিং নৈপুণ্যের পর তাদের বিদায়ে ৪৩ দশমিক ৩ ওভারে ৩ উইকেটের ২৮৬ রানে পৌঁছে যায় ব্রাদার্স। তবে এক প্রান্ত আগলে দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান দাস। শেষ ওভারে দলের প্রয়োজন ৯ রানে নামিয়ে আনেন তিনি। দাস ক্রিজে থাকায় ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ছিল ব্রাদার্স। তবে শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে দাস ফিরে গেলে ম্যাচ নিয়ে চিন্তায় পড়ে যায় ব্রাদার্স। ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৬২ বলে ৭৩ রান করেন দাস।

এরপর শেষ ওভারের শেষ বলে ৪ রান দরকার পড়ে ব্রাদার্সের। সেই কাজটি যোগ্যতার সাথে সম্পন্ন করেন সাদাত। ভারতের পেসার ধাওয়ানের শেষ ডেলিভারি থেকে বাউন্ডারি তুলে নিয়ে ব্রাদার্সকে রেলিগেশন থেকে রক্ষা করেন সাদাত। ৭ বল মোকাবেলা করে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন সাদাত। অগ্রণী ব্যাংকের ধাওয়ানই সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন অগ্রণী ব্যাংকের সৌম্য।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

শাস্তির বিরুদ্ধে কেন আপিল করবেন না স্মিথ?

শাস্তির বিরুদ্ধে কেন আপিল করবেন না স্মিথ?

ঘটনাবহুল সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকে হারালো দক্ষিণ আফ্রিকা

ঘটনাবহুল সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকে হারালো দক্ষিণ আফ্রিকা

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ড্র করে সিরিজ জিতল নিউজিল্যান্ড

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ড্র করে সিরিজ জিতল নিউজিল্যান্ড

টি-টোয়েন্টি সিরিজে আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও নেদারল্যান্ড

টি-টোয়েন্টি সিরিজে আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও নেদারল্যান্ড