টেন্ডুলকারের ‘আউট’ নিয়ে স্টেইনের মিথ্যা দাবি

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৭:৩৩ এএম, ১৮ মে ২০২০
টেন্ডুলকারের ‘আউট’ নিয়ে স্টেইনের মিথ্যা দাবি

২০১০ সালে গোয়ালিয়রে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ২শ রানের রেকর্ড গড়েন শচীন টেন্ডুলকার। দশ বছর পর টেন্ডুলকারের সেই ডাবল-সেঞ্চুরি নিয়ে মুখ খুলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইন। তার দাবি, ওই ম্যাচে টেন্ডুলকারকে আউট করলেও আম্পায়ার ইয়ান গুল্ড আউট দেননি।

স্কাই স্পোর্টসের পডকাস্টে জেমস এন্ডারসনের সাথে আলাপচারিতায় দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার স্টেইন দশ বছর আগের স্মৃতি রোমন্থন করেন। বলেন, ‘এক দিনের ক্রিকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিল টেন্ডুলকার। আমাদের বিরুদ্ধে বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল-সেঞ্চুরি করে টেন্ডুলকার। আমার স্পষ্ট মনে আছে, টেন্ডলকার যখন ১৯০-এর ঘরে ছিল, তখন তাকে আমি এলবিডব্লু করেছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘আম্পায়ার ইয়ান গুল্ড নিশ্চিত আউট দেননি। আমি পরে গুল্ডকে জিজ্ঞাসা করলাম, কেন আউট দিলেন না? এটা তো একেবারেই পরিষ্কার আউট ছিল। উনি এমন এক ভাব করলেন, চারপাশ তাকিয়ে দেখ-আমি যদি ওকে আউট দেই, আমাকে আর হোটেলে ফিরতে হবে না। মাঠ ভর্তি দর্শকদের ভয়ে টেন্ডুলকারকে আউট দেননি গুল্ড।’

তবে দশ বছর পর এসে ওয়ানডেতে বিশ্বের প্রথম ডাবল-সেঞ্চুরি নিয়ে মিথ্যা প্রচার ও আম্পায়ার গুল্ডের বিপক্ষে যে মিথ্যা অভিযোগ তুলছেন স্টেইন, সেটি পরিসংখ্যান পরিষ্কার করে দিচ্ছে।

ওই ম্যাচের পরিসংখ্যান বলছে, ওই ইনিংসে স্টেইনের ৩১ বল খেলেছিলেন টেন্ডুলকার। তার মধ্যে একবারের জন্যও এলবিডব্লুর জোরালো আবেদন ওঠেনি। টেন্ডুলকার যখন ১৯০-এর ঘরে ছিলেন, তখন তাকে তিনটি বল করেছিলেন স্টেইন। আর তিনটিই সাবলীলভাবে ব্যাটে খেলেছিলেন টেন্ডুলকার। কোন বলই তার পায়ে লাগেনি। ৪৭তম ওভারে প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়েছিলেন টেন্ডুলকার।

তৃতীয় বলে আবার স্ট্রাইক পান টেন্ডুলকার। বল ব্যাটে লাগাতে পারলেও কোন রান নিতে পারেননি ওয়ানডে ক্রিকেটে ১শ সেঞ্চুরির মালিক টেন্ডুলকার। অবশ্য বল ব্যাটে লেগে ক্যাচের মতো উঠেছিল, কিন্তু তা কেউই ধরতে পারেননি। চতুর্থ বলেই মিড উইকেটে বল ঠেলে দিয়ে সিঙ্গেল নিয়েছেন টেন্ডুলকার।

পরিসংখ্যান থাকার পরও ওয়ানডে ক্রিকেটের ঐতিহাসিক ডাবল-সেঞ্চুরি নিয়ে স্টেইন কেন মিথ্যা বলছেন, তা বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা পেসারের তকমা পাওয়া স্টেইনই ভালো বলতে পারবেন।

২২৬ মিনিট ক্রিজে থেকে ২৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১৪৭ বলে অপরাজিত ২০০ রান করেন টেন্ডুলকার। তার ডাবল-সেঞ্চুরিতে ৫০ ওভারে ৩ উইকেটে ৪০১ রান করে ভারত। বল হাতে ১০ ওভারে ৮৯ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন স্টেইন। পরে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২৪৮ রানে অলআউট করে দিয়ে ১৫৩ রানের বড় জয় পায় ভারত। সেই সাথে এক ম্যাচ বাকি রেখে ওয়ানডে সিরিজ জয়ও নিশ্চিত করে ভারত।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

‘শচীনকে আউট দিতে ভয় পেয়েছিলেন আম্পায়ার’

‘শচীনকে আউট দিতে ভয় পেয়েছিলেন আম্পায়ার’

শচীনের কাছে ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলিয়ান স্পার্টান

শচীনের কাছে ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলিয়ান স্পার্টান

স্টেইনকে আর দেখা যাবে না টেস্টে

স্টেইনকে আর দেখা যাবে না টেস্টে

ধোনির সেই ব্যাটিং রহস্য জানালেন রায়না

ধোনির সেই ব্যাটিং রহস্য জানালেন রায়না