লা লিগা শুধুই মেসির

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ০৫ মার্চ ২০১৮
লা লিগা শুধুই মেসির

লিওনেল মেসি কত বড় বিগ ম্যাচ খেলোয়াড়, সেটা একমাত্র ইকুয়েডর ছাড়া আর কেউ বলতে পারবে না। রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা যখন আর্জেন্টিনার ভাগ্য একেবারেই সুক্ষ্ম সুতোর ওপর ঝুলছিল, তখন লিওনেল মেসিই ছিলেন উদ্ধারকর্তা। রীতিমত হ্যাটট্রিকই করে বসলেন। সে সঙ্গে আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গেলেন রাশিয়া বিশ্বকাপে।

এরই মধ্যে যখন বার্সেলোনা থেকে নেইমার চলে গেলেন পিএসজিতে, তখন বার্সার ভবিষ্যৎ নিয়ে অনেকেই হয়ে পড়েছিলেন সন্দিহান, ‘তাহলে কী এবার বার্সার কপালে শনির দশা আছে!’ কিন্তু যারা এসব শঙ্কায় ছিলেন, তাদের হয়তো ধারণা কম ছিল যে, বার্সা দলটিতেই রয়েছেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজের মত তারকা। সবচেয়ে বড় কথা, মেসি যেখানে একাই একশো, সেখানে তো আর কথা চলে না।

উল্টো যেন মেসি নিজেকে আরও বেশি প্রমাণ করা সুযোগটা পেয়ে গেলেন। নেইমারের অনুপস্থিতিতে যাতে ক্লাব গতিপথ না হারায়, সে লক্ষ্যে নিজেকে উজাড় করে দিলেন বার্সার জন্য। যে কারণে দেখা গেলো মৌসুমের শুরু থেকেই দুর্বার লিওনেল মেসি। একের পর এক গোল পেলেন। দলকে জেতালেন। অন্যদিকে যখন প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ আর অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কক্ষপথচ্যুত, সেখানে মেসিরা বার্সা এগিয়ে চলছিল দুর্বার গতিতে।

এল ক্ল্যাসিকো থেকে শুরু করে প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেই মেসি হলেন বার্সার ত্রানকর্তা। অবশেষে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে নিজেদের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে যখন প্রকারান্তরে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হলো বার্সা, তখনও পাদপ্রদীপের আলোয় মেসি। নিজেকে তিনি নিয়ে গেলেন অন্য উচ্চতায়। অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে একমাত্র গোলটি এলো মেসির পা থেকে। তাও সে কি এক ফ্রি-কিক থেকে।

সামনে দাঁড়ানো তার ৪-৫জনের মানব দেয়াল। সেই দেয়ালের পেছনে দাঁড়ানো অ্যাটলেটিকোর পরীক্ষিত গোলরক্ষক জ্যান ও’ব্লাক। মেসির বাম পায়ের বুলেট গতির শট লাফিয়ে উঠে মাথাতেও ছোঁয়াতে পারলো না সেই মানব দেয়াল। তাদের ফাঁকি দিয়ে চলে গেলো অ্যাটলেটিকোর জালে। শেষ মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে পড়ে বলটিকে ফেরানোর চেষ্টা করেছিলেন ও’ব্লাক। বলে হাতের ছোঁয়া লেগেছিলও তার; কিন্তু গতির কাছে পরাস্ত হলেন। বল গিয়ে জড়িয়ে গেল অ্যাটলেটিকোর জালে।

দুর্দান্ত এই গোলেই বলতে গেলে নিষ্পত্তি হয়ে গেছে এবারের লা লিগা শিরোপা। বার্সার ঘরেই যে যাচ্ছে স্প্যানিশ সেরার মুকুট! অথচ, এই ম্যাচে যদি বার্সাকে কোনমতে ঠেকিয়ে দেয়া যেতো, তাহলে লিগের শেষ পর্যন্ত লড়াইটা চালিয়ে যেতে পারতো অ্যাটলেটিকো। কারণ, এই ম্যাচে মাঠে নামার আগে যে ৫ পয়েন্টের ব্যবধান ছিল দুই দলের মধ্যে! ম্যাচটি জিততে পারলে অ্যাটলেটিকো ব্যবধান কমিয়ে আনতো ২ পয়েন্টের ব্যবধানে। ড্র করতে পারলে ব্যবধান সেই ৫‘ই থাকতো। কিন্তু হেরে যাওয়ার ফলে ব্যবধান দাঁড়িয়ে গেলো ৮ পয়েন্টের।

চলতি লা লিগার মৌসুমে ২৭ ম্যাচে এ নিয়ে মোট ১০বার বার্সার হয়ে গোলের সূচনা করেছিলেন মেসি। লা লিগায় সব মিলিয়ে করলেন ২৪ গোল। খেলেছেন ২৭ ম্যাচের প্রতিটিতেই। যদিও এক ম্যাচে মাঠে নেমেছেন সাইড বেঞ্চ থেকে। একটি হ্যাটট্রিকও করেছেন মেসি। এইবারের বিপক্ষে মোট ৪ গোল করেছিলেন তিনি। এসব পরিসংখ্যানই বলে দেয়, লা লিগায় আর কেউ মেসির এমন উচ্চতায় উঠে আসতে সক্ষম হবে না এবং ভক্তদেরও মন ভরিয়ে দিতে পারবে না।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

রোনালদোর জোড়া গোল, ছন্দে ফিরলো রিয়াল

রোনালদোর জোড়া গোল, ছন্দে ফিরলো রিয়াল

নেইমারের সফল অস্ত্রোপচার, খেলতেও পারেন বিশ্বকাপে

নেইমারের সফল অস্ত্রোপচার, খেলতেও পারেন বিশ্বকাপে

ইউনাইটেড ছাড়ছেন ইব্রাহিমোভিচ

ইউনাইটেড ছাড়ছেন ইব্রাহিমোভিচ

পিএসজির বিপক্ষে ফিট, ক্রুস ও মোদ্রিচের নিয়ে শঙ্কা

পিএসজির বিপক্ষে ফিট, ক্রুস ও মোদ্রিচের নিয়ে শঙ্কা