ড্র করেও শেষ ১৬-তে বার্সেলোনা

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৮
ড্র করেও শেষ ১৬-তে বার্সেলোনা

মার্কো ইকার্দির শেষ মুহূর্তের গোলে ইন্টার মিলান ঘরের মাঠ সান সিরোতে কাল বার্সেলোনার সাথে ১-১ গোলে ড্র করে পরাজয় রক্ষা করেছে। কিন্তু এই ড্রয়ে ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ বি’র প্রথম দল হিসেবে শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা।

পুরো ম্যাচে প্রথম থেকেই আধিপত্য ধরে রেখেছিল বার্সেলোনা। কিন্তু ৮৭ মিনিটে ইকার্দির গোলে বার্সাকে গোল হজম করতে হয়। আর তাতেই ইন্টারের ড্র নিশ্চিত হয়। এর মাত্র চার মিনিট আগে ফিলিপ কুটিনহোর সহায়তায় বদলী খেলোয়াড় ম্যালকম বার্সেলোনাকে এগিয়ে দিয়েছিল।

ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টস ইতালিয়াতে ইকার্দি বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বের সেরা একটি দলের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিলাম। তাদের গোলটি ছিল একেবারেই বার্সেলোনার স্বভাবজাত গোল। কিন্তু আমরা কখনই ম্যাচ ছেড়ে দেইনি। লড়াই করেই এক পয়েন্ট অর্জন করেছি। গোল হজমের পরেও আমরা ছেড়ে দেইনি। সৌভাগ্যবশত বলটা আমার কাছে এসে পড়ে এবং তার থেকে দলকে গোল উপহার দেই।’

তবে ম্যাচে ইন্টারকে বেশ কয়েকবার নিশ্চিত গোলের হাত থেকে রক্ষা করেছেন গোলরক্ষক সামির হানডানোভিচ। বার্সা মিডফিল্ডার সার্জিও বাসকুয়েট বলেছেন, আমরা কোন বলই ডি বক্সের মধ্য থেকে ক্লিয়ার করতে পারছিলাম না, আর তারই খেসারত আমাদের দিতে হয়েছে। আমি মনে করি আমাদের আরও গোল প্রাপ্য ছিল। পুরো ম্যাচেই আমাদেরই প্রাধান্য ছিল।

লিওনেল মেসিবিহীন বার্সেলোনা তিন পয়েন্ট অর্জন করতে না পারায় সত্যিকার অর্থেই সকলকে হতাশ করেছে। যে সুযোগগুলো তারা তৈরি করেছিল সেগুলো জয়ের জন্য যথেষ্ঠ ছিল। কিন্তু স্লোভেনিয়ার গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় বার্সাকে বারবার হতাশ হতে হয়েছে। হানডানোভিচ বলেন, ‘আমি মনে করি বার্সেলোনা আমাদের থেকে অনেক ভালো খেলেছে। প্রথমার্ধে তারা খুব সহজেই আক্রমণে আসতে পেরেছে। বারবার একটি দলকে পজিশনের সুযোগ দিলে তার থেকে ম্যাচ বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে।’

ম্যাচের শুরু থেকেই সবদিক দিয়েই এগিয়ে ছিল বার্সা। ওসমানে ডেম্বেলের বেশ কয়েকটি শট শুরুতেই আটকে দেন হানডানোভিচ। তারই ধারাবাহিকতায় একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে কাতালান জায়ান্টরা। ১৯ মিনিটে ইন্টারের সবচেয়ে সহজ সুযোগটি হাতছাড়া করেন কাওয়াডু আসামো। ইভান পেরিসিচের লো ক্রস থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন ঘানার এই মিডফিল্ডার। বিরতির আগে লুইস সুয়ারেজ ও কুটিনহোর দুটি প্রচেষ্টা আটকে দিয়ে আবারও ইন্টারকে রক্ষা করেন হানডানোভিচ।

বিরতির ১৫ মিনিট পর ম্যাচের সবচেয়ে সেরা সেভ করেছেন স্লোভেনিয়ান হানডানোভিচ। ইভান রাকিটিচের শট অসাধারণ দক্ষতায় আটকে দিয়ে বার্সেলোনাকে এগিয়ে যেতে দেননি। কিন্তু ৮৩ মিনিটে আর শেষ রক্ষা হয়নি। ডান দিক থেকে দুই ইন্টার খেলোয়াড়ের মাঝ দিয়ে ম্যালকমের শট আটকানোর আর উপায় ছিল না হানডানোভিচের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি একাই লড়াই করে গেছেন। ইকার্দিও গোল করে ইন্টারের পাশাপাশি কার্যত হানডানোভিচকেই সহায়তা করেছেন।

বার্সা কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দে বলেছেন, শেষ মুহূর্তে আমরা কিছুটা পিছিয়ে পড়েছিলাম। আমরা জানতাম অনেক ম্যাচেই ইন্টার শেষ মিনিটে পয়েন্ট আদায় করে নিয়েছে। কিন্তু মূল লক্ষ্য অর্জিত হওয়ায় আমরা খুশি। এখন গ্রুপের প্রথম স্থান অর্জন করার লক্ষ্যে বাকি ম্যাচগুলো খেলব।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

পিএসজির সাথে সম্পর্ক আরও জোরদার করলেন ডি মারিয়া

পিএসজির সাথে সম্পর্ক আরও জোরদার করলেন ডি মারিয়া

মেক্সিকোর বিপক্ষেও নেই মেসি

মেক্সিকোর বিপক্ষেও নেই মেসি

নেইমার-এমবাবের গোল, পিএসজির রেকর্ড জয়

নেইমার-এমবাবের গোল, পিএসজির রেকর্ড জয়

টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা

টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা