৬ রেকর্ড হাতছানি দিচ্ছে মেসিকে

স্পোর্টস মেইল২৪ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ০৪ জানুয়ারি ২০১৯
৬ রেকর্ড হাতছানি দিচ্ছে মেসিকে

ফাইল ছবি

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে পাল্লাপাল্লি করে অনেক আগে থেকেই রেকর্ড ভাঙাগড়ার খেলায় মেতে আছেন লিওনেল মেসি। ব্যাপারটা এখন এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে, মাঠে নামলেই কোনো না কোন রেকর্ড গড়ছেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন এই তারকা।

মেসির এই নতুন নতুন রেকর্ড গড়ার খেলা ২০১৯ সালেও অব্যাহত থাকবে, সেটা অনুমিতই। হয়তো নতুন বছরে অনেক অনেক রেকর্ডই নিজের করে নেবেন। তবে সব রেকর্ডের গুরুত্ব-মর্যাদা তো আর সমান নয়। এমন কিছু রেকর্ড আছে, যেগুলোর রোশনাই ছড়িয়ে পড়ে পুরো বিশ্বে। ২০১৯ সালে এ রকমই ৬টি বড় রেকর্ড হাতছানি দিচ্ছে মেসিকে।

বার্সেলোনা নতুন বছর শুরু করবে ৬ জানুয়ারি। গেটাফের বিপক্ষে লিগ ম্যাচ দিয়ে। তার আগেই পরিসংখ্যানের পাতা ঘেঁটে স্পেনের জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক মার্কা খুঁজে বের করেছে মেসিকে হাতছানি দেওয়া সেই ৬টি বড় রেকর্ড। নতুন বছরে কোন ৬টি অনন্য রেকর্ড মেসিকে হাত বাড়িয়ে ডাকছে তা তুলে ধরা হলো এখানে।

১. এক ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ শিরোপা জয়

 বিশ্ব ক্লাব ফুটবলের ইতিহাসে এক ক্লাবের হয়ে সবচেয়ে শিরোপা জয়ের রেকর্ডটি বর্তমানে রায়ান গিগসের দখলে। ওয়েলস কিংবদন্তি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে দীর্ঘ ২ যুগের ক্যারিয়ারে শিরোপা জিতেছেন ৩৬টি। ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে মেসি বর্তমানে শিরোপা জিতেছেন ৩৩টি। মানে আর ৩টি শিরোপা জিতলেই গিগসের রেকর্ডটা ছুঁয়ে ফেলবেন মেসি। ৪টি জিতলে গিগসকে পেছনে ফেলে রেকর্ডটা গড়তে পারবেন নতুন করে। বিশ্বের আর সব বড় ক্লাবগুলোর মতো বার্সেলোনার সামনেও ২০১৯ সালে সুযোগ আছে ৬টি শিরোপা জেতার। এর মধ্যে ৪টি জিতলেই রেকর্ডটি হয়ে যাবে মেসির একার।

২. লা লিগায় সর্বোচ্চ জয়ের রেকর্ড

বর্তমানে এই রেকর্ডটি রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াসের দখলে। রিয়ালের জার্সি গায়ে ক্যাসিয়াস লা লিগায় ম্যাচ জিতেছেন সর্বোচ্চ ৩৩৪টি। সবকিছু ঠিকঠাক মতো চললে ক্যাসিয়াসের এই রেকর্ডটি মেসির হওয়াটা কেবলই সময়ের ব্যাপার। কারণ, বার্সেলোনার হয়ে মেসি এরই মধ্যে লা লিগায় ৩২২টি জয় পেয়েছেন।মানে আর ১২টি জয় পেলেই ক্যাসিয়াসকে ধরে ফেলবেন মেসি। ১৩টি জয় পেলে রেকর্ডটা হবে শুধুই তার। এই মৌসুমেই লিগে আরও ২১টি ম্যাচ বাকি আছে বার্সেলোনার। এরপর ২০১৯-২০২০ মৌসুমেও অন্তত ১৬/১৭টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবেন মেসি। সুতরাং ধরেই নেওয়া যায়, চোটমুক্ত থাকতে পারলে এই বছরই রেকর্ডটা নিজের করে নেবেন মেসি।

 ৩. সর্বোচ্চ পিচিচি ট্রফি জয়ের রেকর্ড

এই রেকর্ডটি বর্তমানে স্প্যানিশ কিংবদন্তি টেলমো জারার অধিকারে। মার্কার পক্ষ থেকে লা লিগার প্রতি মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলদাতাকে দেওয়া এই পুরস্কার সর্বোচ্চ ৬ বার জিতেছেন টেলমো জারা। মেসি এরই মধ্যে এটা জিতেছেন ৫ বার। মানে এবার জিতলেই কিংবদন্তি জারার রেকর্ডটিতে ভাগ বসাবেন মেসি। আর্জেন্টাইন তারকা জারার রেকর্ডে ভাগ বসানোর দিকেই ছুটছেন। এখনো পর্যন্ত মৌসুমে লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনিই। লিগে এরই মধ্যে ১৫ ম্যাচে করেছেন ১৫ গোল।

৪. সর্বোচ্চ ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুট জয়ের রেকর্ড

বর্তমানেও এই রেকর্ডটি লিওনেল মেসির দখলেই। সর্বোচ্চ ৫ বার ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুট জিতেছেন তিনি। এবার জিতলে সংখ্যাটা হয়ে যাবে ৬। আর সেটা হলে অন্য একটা কীর্তিও গড়ে ফেলবেন তিনি। গত দুই বছরই এই পুরস্কারটা জিতেছেন তিনি। এবার জিতলে টানা তৃতীয়বার এই পুরস্কার হাতে তুলতে পারবেন তিনি। যে কীর্তি ইতিহাসে আর কারো নেই।

৫. ৫০তম হ্যাটট্রিকের মাইলফলকে পা রাখা

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এ পর্যন্ত ৪৯টি হ্যাটট্রিক করেছেন মেসি। মানে আর একটি হ্যাটট্রিক করলেই ছুঁয়ে ফেলবেন ৫০তম হ্যাটট্রিকের মাইলফলক। নতুন বছরে এই কীর্তিটাও যে মেসি গড়ে ফেলবেন, তা নিয়ে বাজি ধরাই যায়।

৬. বার্সেলোনার হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ড

বর্তমানে এই রেকর্ডটি সাবেক বর্ষিয়ান মিডফিল্ডার জাভি হার্নান্দেজের দখলে। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তিনি ম্যাচ খেলেছেন ৭৬৭টি। সেখানে মেসি খেলেছেন ৬৫৭টি ম্যাচ। মানে এই বছরে মেসির পক্ষে জাভির রেকর্ডটি ভেঙে দেওয়া সম্ভব হবে না। কারণ জাভির চেয়ে মেসি এখানো ১১০ ম্যাচ পিছিয়ে রয়েছেন। তবে তালিকার দুই নম্বরে থাকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাকে টপকে যেতে পারবেন। সেজন্য মেসিকে খেলতে হবে আরও ১৮টি ম্যাচ। বার্সার হয়ে ইনিয়েস্তা ম্যাচ খেলেছেন ৬৭৪টি। ইনিয়েস্তাকে টপকে যাওয়ার মেসির সামনে শুধুই থাকবেন জাভি।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

এ পগবাকেই উপেক্ষা করতেন মরিনহো

এ পগবাকেই উপেক্ষা করতেন মরিনহো

চার সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে হোন্ডা

চার সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে হোন্ডা

৪৮ দল নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের সম্ভাবনা এখনো দেখছে ফিফা

৪৮ দল নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের সম্ভাবনা এখনো দেখছে ফিফা

ইরানে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হবে নারীদের ফুটবল ম্যাচ

ইরানে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হবে নারীদের ফুটবল ম্যাচ