প্রোটিয়াদের ডেকে নিয়ে ১৮ বছরের বন্ধ্যাত্ব ঘোচালো পাকিস্তান

স্পোর্টসমেইল২৪ স্পোর্টসমেইল২৪ প্রকাশিত: ০৮:৫৫ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১
প্রোটিয়াদের ডেকে নিয়ে ১৮ বছরের বন্ধ্যাত্ব ঘোচালো পাকিস্তান

ছবি : গেটি ইমেজ

দীর্ঘ ১৮ বছর পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ জিতলো পাকিস্তান। শুধু সিরিজ নয়, দুই ম্যাচ সিরিজে প্রোটিয়াদের হোয়াইটওয়াশও করেছে বাবর আজমরা। এর আগে সর্বশেষ ২০০৩ সালেও নিজেদের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জয় করেছিল পাকিস্তান।

প্রোটিয়াদের নিজ দেশে আমন্ত্রণ জানিয়ে ঐতিহাসিক এ সিরিজ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন পাকিস্তানের মিডিয়াম পেসার হাসান আলী। প্রথমবারের মতো এক টেস্টে ১০ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাওয়াল পিন্ডিতে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের পঞ্চম দিনে ৯৫ রানে প্রোটিয়াদের পরাজিত করেছে পাকিস্তান। নিজ দেশে ডেকে নিয়ে এ জয়ে সিরিজ জয় করা ছাড়াও প্রোটিয়াদের হোয়াইটওয়াশও করলো উপমহাদেশের দলটি।

সিরিজের শেষ ও দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম ইনিংসের ন্যায় দ্বিতীয় ইনিংসেও ৫ উইকেট শিকার করেন হাসান আলী। ম্যাচে তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ১১৬ রানের বিপরীতে ক্যারিয়ার সেরা ১০ উইকেট।
sportsmail24
জয়ের জন্য ৩৭০ রানের লক্ষ্য নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং শুরু করা দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস পঞ্চম দিনের চা পানের বিরতির আগেই ২৭৪ রানে গুটিয়ে যায়। হাসানের নতুন বলের সঙ্গী শাহীন শাহ আফ্রিদি ৫১ রানে তুলে নিয়েছেন চার উইকেট। স্পিনার ইয়াসির শাহ প্রোটিয়াদের শেষ উইকেটটি ফিরিয়ে দিয়ে সামিল হন পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের বিজয় উৎসবে।

সফরকারীদের হয়ে ওপেনার আইডেন মার্করাম ১০৮ ও টেম্বা বাভুমা ৬১ রান সংগ্রহ করেন। চতুর্থ উইকেট জুটিতে তাদের ১০৬ রানের সংগ্রহ কিছুটা হলেও ভীতি ছড়িয়েছে স্বাগতিক শিবিরে।

মধ্যাহ্ন বিরতির আগে শেষ বল থেকে এক রান নিয়ে বিশ্রামে যান মার্করাম। এ সময় মাত্র ৩ উইকেটে ২১৯ রানে পৌঁছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এতে বিরতি থেকে ফিরে জয়ের জন্য সফরকারীদের প্রয়োজন ছিল ১৫১ রান। কিন্তু হাসান দ্বিতীয় নতুন বল নিয়ে বোলিংয়ে এসে ধসিয়ে দেন প্রোটিয়াদের ব্যাটিং অর্ডার। মাত্র ৩৩ রানে শেষ ৭ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা।
sportsmail24
যদিও এরই ফাঁকে নিজের পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরিটি পূর্ণ করেছেন মার্করাম। দক্ষিণ আফ্রিকার বাইরে এসে প্রথম এই সেঞ্চুরি করা ইনিংসে ১৩টি বাউন্ডারি ও তিনটি ওভার বাউন্ডারি হাকিয়েছেন মার্করাম।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বিগত ১২ বারের প্রচেস্টায় এটি ছিল পাকিস্তানের দ্বিতীয় টেস্ট সিরিজ জয়। বাকি ম্যাচের আটটিতে তারা হেরে গেছে এবং ড্র হয়েছে তিনটি সিরিজ।

সর্বশেষ ২০০৩ সালে নিজেদের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জয় করেছিল পাকিস্তান। করাচিত অনুষ্ঠিত চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টটি জিতে নিয়েছিল ৭ উইকেটে।

এদিকে ১৪ বছর পর সফরে আসা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এ জয়ে টেস্ট র‌্যাংকিংয়েরও উন্নতি ঘটেছে পাকিস্তানের। আন্তর্জাতিক টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে তারা উঠে গেছে পঞ্চম স্থানে। আর পঞ্চম স্থান থেকে ষষ্ঠ স্থানে নেমে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় টেস্ট)
পাকিস্তান ১ম ইনিংস : ২৭২ রান (বাবর আজম ৭৭, ফাহিম আশরাফ ৭৮*, নর্টি ৫/৫৬, মহারাজ ৩/৯০)
দ.আফ্রিকা ১ম ইনিংস : ২০১ রান (বাভুমা ৪৪, হাসান আলী ৫/৫৬)।

পাকিস্তান ২য় ইনিংস : ২৯৮ রান (মো. রিজওয়ান ১১৫*, লিন্ডে ৫/৬৪)
দ.আফ্রিকা ২য় ইনিংস : ২৭৪ রান (মার্করাম ১০৮, বাভুমা ৬১, হাসান আলী ৫/৬০)।

ফল : পাকিস্তান ৯৫ রানে জয়ী
সিরিজ : পাকিস্তান ২-০ ব্যবধানে জয়ী
ম্যাচ সেরা : হাসান আলী (পাকিস্তান)।

[sportsmail24.com এখন sportsmail.com.bd ঠিকানাতেও। খেলাধুলার ভিডিও-ছবি এবং  সর্বশেষ সংবাদ পড়তে ব্রাউজ করুন যেকোন ঠিকানায়। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্ট্রল করে নিতে আমাদের অ্যাপস ]


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ঐতিহাসিক ম্যাচকে স্মরণীয় করে রাখলো পাকিস্তান

ঐতিহাসিক ম্যাচকে স্মরণীয় করে রাখলো পাকিস্তান

অভিষেক টেস্টেই রেকর্ড বইয়ে নওমান

অভিষেক টেস্টেই রেকর্ড বইয়ে নওমান

আইসিসির মাস সেরা প্রথম ক্রিকেটার পান্থ-শাবনিম

আইসিসির মাস সেরা প্রথম ক্রিকেটার পান্থ-শাবনিম

বাংলাদেশের সমান পয়েন্ট নিয়ে পাকিস্তানকে পিছনে ফেললো আফগানিস্তান

বাংলাদেশের সমান পয়েন্ট নিয়ে পাকিস্তানকে পিছনে ফেললো আফগানিস্তান