কেনের হ্যাট্টিক, গোল উৎসবে শেষ ষোলোতে ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৪৬ পিএম, ২৪ জুন ২০১৮
কেনের হ্যাট্টিক, গোল উৎসবে শেষ ষোলোতে ইংল্যান্ড

অধিনায়ক হ্যারি কেনের হ্যাট্টিকে বিশ্বকাপ ফুটবলের শেষ ষোলোতে উঠলো ইংল্যান্ড। রোববার ‘জি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ইংলিশরা ৬-১ গোলের বড় ব্যবধানে পানামাকে হারিয়েছে। এ জয়ে ২ খেলায় ৬ পয়েন্ট নিয়ে শেষ ষোলোতে উঠলো ইংল্যান্ড। অন্যদিকে টানা দ্বিতীয় হারে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল পানামা।

গ্রুপ থেকে ২ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা অপর দল বেলজিয়াম। পানামার মত তিউনিশিয়াও দুই ম্যাচ হেরে বিশ্বকাপ মিশন গ্রুপ পর্বেই শেষ করল।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ইনজুরি সময়ের গোলে জয় পেয়েছিল ইংল্যান্ড। তাই পানামার বিপক্ষে নিজেদের মেলে ধরতেই মুখিয়ে ছিল ইংলিশরা। মাঠে বল গড়ানোর ৮ মিনিটের সময় প্রথম গোলের স্বাদ পায় ইংল্যান্ড। ডিফেন্ডার কিয়েরান ট্রিপায়ারের ক্রস থেকে হেডে গোল করেন রক্ষণভাগের আরেক খেলোয়াড় জন স্টোনস।

শুরুতে ১-০ গোলে এগিয়ে দ্রুতই ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলে ইংল্যান্ড। ২২ মিনিটে পোনাল্টি থেকে গোল করেন নেন অধিনায়ক স্ট্রাইকার কেন।
প্রথম দু’গোলের মত তৃতীয় গোল পেতে খুব বেশি সময় নষ্ট করতে হয়নি ইংল্যান্ডকে। ৩৬ মিনিটে মিডফিল্ডার রাহিম স্টারলিং-এর যোগান দেয়া বল থেকে গোল করেন মিডফিল্ডার জেসে লিংগার্ড।

চার মিনিট পর দলের চতুর্থ ও নিজের দ্বিতীয় গোল করেন প্রথম গোলের মালিক স্টোনস। ফলে পানামার জালে এক হালি গোল পূর্ণ করে ইংল্যান্ড। সেই সংখ্যাটা বিরতির আগে বাড়িয়ে নিয়েছেন কেন। আবারও পেনাল্টি থেকে প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ে গোল করেন কেন। ফলে ৫-০ গোলে এগিয়ে থেকে ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ করে ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের গোল উৎসবের ম্যাচে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি পানামা। বলার মত কোন আক্রমণই করতে পারেনি তারা। তবে ৬২ মিনিটে মিডফিল্ডার রুবেন লোফটাস-চিকের পাস থেকে ডান-পায়ের শটে পানামার জালে ষষ্ঠ ও নিজের হ্যাট্রিক পূর্ণ করেন কেন। এবারের আসরে দ্বিতীয় হ্যাট্টিক করলেন কেন। গত ১৫ জুন স্পেনের বিপক্ষে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাট্টিক করেন পর্তুগালের অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এই হ্যাট্টিকে চলতি বিশ্বকাপে এখন সর্বোচ্চ গোলের মালিকও হলেন কেনের। তার গোল সংখ্যা ৫টি।

ছয় গোল হজম করে একটি গোল পরিশোধ করতে পারে পানামা। ৭৮ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে রির্কাডো আবিলার ক্রস থেকে ঝাপিয়ে বলে পা ছুয়ে গোল আদায় করেন নেন ডিফেন্ডার ফিলিপে ব্যালয়। এতে ম্যাচের স্কোর দাড়ায় ৬-১। এ স্কোরেই ম্যাচ জিতে মাঠে ছাড়ে ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপ ইতিহাসে এটি সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয় ইংল্যান্ডের। ১৯৬৬ সালে বিশ্বকাপ ফাইনালে পশ্চিম জার্মানির বিপক্ষে ৪-২ গোলে জয় পেয়েছিল ইংলিশরা। এতোদিন ঐ স্কোরই বড় ব্যবধানে জয় ছিল ইংল্যান্ডের।

আগামী ২৮ জুন কালিনিনগ্রাদে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। ওই ম্যাচের ফলের উপর গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণ হবে। একই দিন সারানস্কে লড়বে পানামা ও তিউনিশিয়া।


শেয়ার করুন :


আরও পড়ুন

ইনজুরি সময়ের গোলে বেঁচে থাকলো জার্মানি

ইনজুরি সময়ের গোলে বেঁচে থাকলো জার্মানি

দক্ষিণ কোরিয়াকে বিদায় দিয়ে শেষ ষোলোতে মেক্সিকো

দক্ষিণ কোরিয়াকে বিদায় দিয়ে শেষ ষোলোতে মেক্সিকো

আর্জেন্টিনার হুমকি ‘লিওনেল মুসা’

আর্জেন্টিনার হুমকি ‘লিওনেল মুসা’

তিউনিশিয়াকে ৫-২ গোলে হারিয়ে শেষ ষোলোতে বেলজিয়াম

তিউনিশিয়াকে ৫-২ গোলে হারিয়ে শেষ ষোলোতে বেলজিয়াম